টঙ্গীবাড়ীর সন্তান বাঙ্গালির মুক্তি সংগ্রামের স্মৃতির সৌধের স্থপতি

জাহাঙ্গীর আলম: ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধেও ৩০ লাখ শহীদের স্মৃতি ধরে রাখার জন্য ঢাকার সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধ নির্মানের পরিকল্পনা গ্রহন করে বাংলাদেশ সরকার। গনর্পূত বিভাগ পরিকল্পিত জাতীয় স্মৃতি সৌধের জন্য নকশা আহ্বান করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিস্তারিত… »

বাঙ্গালির মুক্তি সংগ্রামের স্মৃতির স্থাপতি টঙ্গীবাড়ীর সৈয়দ মাইনুল

জাহাঙ্গীর আলম: ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধেও ৩০ লাখ শহীদের স্মৃতি ধরে রাখার জন্য ঢাকার সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধ নির্মানের পরিকল্পনা গ্রহন করে বাংলাদেশ সরকার। গনর্পূত বিভাগ পরিকল্পিত জাতীয় স্মৃতি সৌধের জন্য নকশা আহ্বান করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিস্তারিত… »

বাঙ্গালির মুক্তি সংগ্রামের স্মৃতির স্থাপতি টঙ্গীবাড়ীর সৈয়দ মাইনুল

জাহাঙ্গীর আলম: ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধেও ৩০ লাখ শহীদের স্মৃতি ধরে রাখার জন্য ঢাকার সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধ নির্মানের পরিকল্পনা গ্রহন করে বাংলাদেশ সরকার। গনর্পূত বিভাগ পরিকল্পিত জাতীয় স্মৃতি সৌধের জন্য নকশা আহ্বান করে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। বিস্তারিত… »

স্মৃতিসৌধের স্থপতি মাইনুলের নীরব প্রস্থান

মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদনের প্রতীক জাতীয় স্মৃতিসৌধের খ্যাতিমান স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেনের নীরব প্রস্থান ঘটেছে। তিনি আর ইহজগতে বেঁচে নেই। আমাদের ছেড়ে অনেকটাই নীরবে পরপাড়ে পাড়ি দিয়েছেন তিনি। বিস্তারিত… »

স্মৃতিসৌধের স্থপতি মাইনুলের নীরব প্রস্থান

মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদনের প্রতীক জাতীয় স্মৃতিসৌধের খ্যাতিমান স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেনের নীরব প্রস্থান ঘটেছে। তিনি আর ইহজগতে বেঁচে নেই। আমাদের ছেড়ে অনেকটাই নীরবে পরপাড়ে পাড়ি দিয়েছেন তিনি। বিস্তারিত… »

স্থপতি সৈয়দ মইনুল হোসেনের স্বপ্ন আজও বাস্তবায়িত হয়নি

জাতীয় স্মৃতিসৌধ প্রতিষ্ঠার এত বছর পরেও মানুষ জানে না যে, জাতীয় স্মৃতিসৌধে প্রয়াত সৈয়দ মইনুল হোসেনের আরও কিছু চাওয়া ছিল। তার ইচ্ছা ছিল স্মৃতি সৌধের গায়ে সিমেন্টের যে প্রলেপ দেওয়া হয়েছে তার বদলে যেন মার্বেল পাথর দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। আক্ষেপের বিষয় হল আজও সে স্বপ্ন বাস্তবায়িত হয়নি। বিস্তারিত… »

স্থপতি সৈয়দ মইনুল হোসেনের স্বপ্ন আজও বাস্তবায়িত হয়নি

জাতীয় স্মৃতিসৌধ প্রতিষ্ঠার এত বছর পরেও মানুষ জানে না যে, জাতীয় স্মৃতিসৌধে প্রয়াত সৈয়দ মইনুল হোসেনের আরও কিছু চাওয়া ছিল। তার ইচ্ছা ছিল স্মৃতি সৌধের গায়ে সিমেন্টের যে প্রলেপ দেওয়া হয়েছে তার বদলে যেন মার্বেল পাথর দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। আক্ষেপের বিষয় হল আজও সে স্বপ্ন বাস্তবায়িত হয়নি। বিস্তারিত… »

অভিমান নিয়ে চলে গেলেন স্মৃতিসৌধের স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেন

প্রচার কিংবা খ্যাতির মোহ ছিল না তাঁর। অনেকটা লোকচক্ষুর আড়ালে ছিল তাঁর নিভৃতবাস। কারো সঙ্গে তেমন একটা কথা বলতেন না, দেখাও করতেন না। কোথাও যেতেন না তেমন। অজানা এক অভিমানে নিজেকে সব কিছু থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন মেধাবী স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেন। বিস্তারিত… »

অভিমান নিয়ে চলে গেলেন স্মৃতিসৌধের স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেন

প্রচার কিংবা খ্যাতির মোহ ছিল না তাঁর। অনেকটা লোকচক্ষুর আড়ালে ছিল তাঁর নিভৃতবাস। কারো সঙ্গে তেমন একটা কথা বলতেন না, দেখাও করতেন না। কোথাও যেতেন না তেমন। অজানা এক অভিমানে নিজেকে সব কিছু থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন মেধাবী স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেন। বিস্তারিত… »