মধ্যশিলমন্দির রাস্তার পাশে দুর্লভ প্রজাতির ৫০ গাছ ভেঙ্গে দিল দুর্বৃত্তরা

মুন্সীগঞ্জ শহরের মধ্যশিলমন্দিতে শহীদ শেখ কামাল সরণির দু’পাশের হরেক রকমের দেশী-বিদেশী উঠতি গাছ ভেঙ্গে সাবাড় করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার গভীর রাতে বিনষ্ট করা গাছগুলো দেখতে দিনভর মানুষ ভিড় জমায়। দুর্লভ প্রজাতির এই গাছ বিনষ্টের চিত্র দেখে অনেকে চোখের জল ফেলেন। বৃক্ষ প্রেমিক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আমির হোসেন মুন্সী ভাতার টাকায় ঔষধী, ফল, ফুলসহ নানা বিরল প্রজাতির ৫ শতাধিক গাছ রোপণের উদ্যোগ নেন। গতবছরের জুনে জেলা প্রশাসনের ‘সবুজে সাজাই মুন্সীগঞ্জ’ কর্মসূচীর আওতায় এ বৃক্ষরোপণ করা হয়। এক বছরে গাছগুলো বড় হয়ে উঠছিল। এর মধ্যে ৫০টি গাছ বিনষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা।

মোঃ আমির হোসেন মুন্সী বলেন, জেলা প্রশাসনের নেয়া ‘সবুজে সাজাই মুন্সীগঞ্জ’ কর্মসূচীকে বাস্তবায়ন করতে আমি আমার মুক্তিযোদ্ধা ভাতার টাকা হতে ৫ শতাধিক বিরল প্রজাতির গাছ রোপণের উদ্যোগ নেই। তিনি বলেন, ‘কোন কিছু পাবার আশায় নয়, বৃক্ষকে ভালবাসি বলেই গাছগুলো সংগ্রহ করি দূর দূরান্ত থেকে। এ গাছগুলো যেমন রাস্তার দুপারে সৌন্দর্য বাড়াচ্ছে, তেমনি এ গাছ পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় ও বিরাট ভূমিকা পালন করবে।

জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানা নিজের হাতে গাছ লাগিয়ে ‘সবুজে সাজাই মুন্সীগঞ্জ’ কর্মসূচীর উদ্বোধন করেছিলেন। এরপরই ৫ শতাধিক গাছ রোপণ করা হয়। সাইন বোর্ড লাগিয়ে দেয়া হয় ‘সবুজে সাজাই মুন্সীগঞ্জ’। পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএমসহ বিশিষ্টজনরা গাছ লাগিয়েছেন এই রাস্তার দু’পাশে। চলতি বছরেও বেশ কিছু বৃক্ষ রোপণ করা হয়।

আমির হোসেন মুন্সী বলেন, এক শ্রেণীর ভূমিদস্যু রাস্তার পাশের সরকারী জায়গা দখল করতে এমনটি করে চলেছেন। এতে এলাকাবাসীর মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি আলমগীর হোসাইন বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষ এই বিষয়ে প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। উঠতি এই বৃক্ষগুলো যারা বিনষ্ট করেছে তারা মানুষের কাজ করেনি। তাদের শাস্তির আওতায় আনা হবে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *