ভূঁইফোর ও সাইনবোর্ড সর্বস্ব মহলের কাছে জিম্মি আসল আবাসন ব্যবসায়ীরা

ভূঁইফোর ও সাইনবোর্ড সর্বস্ব মহলের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছেন, আসল আবাসন ব্যবসায়ীরা। রাজধানী ও এর আশপাশের এলাকাগুলোতে গড়ে ওঠা নাম সর্বস্ব বিভিন্ন আবাসন প্রকল্পের কারণে– জমির দামও বেড়েছে কয়েকগুন। এ কারণে অল্প আয়ের মানুষের বাড়ি করার স্বপ্ন বাস্তবায়ন অসাধ্য হয়ে পড়ছে।

রাজধানী থেকে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক ধরে চলতে চলতে চোখে পড়বে, অসংখ্য আবাসন কোম্পানীর সাইনবোর্ড। মুন্সীগঞ্জ ডিসি অফিসের পরিসংখ্যান বলছে, পদ্মাসেতু পর্যন্ত শুধুমাত্র চারলেনের মহাসড়ক ঘেষা প্রায় ৩৩টি রিয়েল এস্টেট কোম্পানী’র সাইনবোর্ড রয়েছে। এরমধ্যে আমিন মোহাম্মদ গ্রুপ এবং স্বপ্নধরা আবাসন প্রকল্পের বৈধ অনুমোদন রয়েছে। বাকিগুলোর দু’একটি বৈধতার জন্য চেষ্টা চালালেও অধিকাংশই নাম সর্বস্ব।

এসব সাইনবোর্ডের আড়ালে– প্রতারণা ও জিম্মি বাণিজ্যের অভিযোগ রয়েছে। কেউ কেউ বলছেন, স্থানীয় প্রভাবশালীদের মদদে প্রকৃত আবাসন ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে জমির দাম বাড়িয়ে দেয়া হয়। কোন কোন ক্ষেত্রে শুধু জমি ভাড়া নিয়ে সাইনবোর্ড টাঙানো হয়।

শ্রীনগরের ষোলঘর ইউনিয়ন এলাকায় দেখা যায়, একই জামিতে একাধিক কোম্পানীর সাইনবোর্ড। স্বপ্নধরা’র সাথে কিংস সিটি এবং ওয়ান্ডারল্যান্ড সিটির এই রেষারেষির কারণ জানা যায় সংশ্লিষ্টদের কাছে।

এসব সাইনবোর্ডের নিয়ন্ত্রক ষোলঘন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলামের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

আবাসন খাতের সংকট থেকে রক্ষা পেতে প্রয়োজন সরকারের আইনি কার্যকর পদক্ষেপ।

এস. এ টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *