গজারিয়ায় বিএনপির দু’গ্রুপে সংঘর্ষে আহত ১০, আটক ৩

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নের গোয়ালগাঁও গ্রামে দুই দফা সংঘর্ষে ১০জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে স্বপন ও বোরহানকে আশংকাজনক অস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং বাকীদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৩জনকে আটক করছে পুলিশ। স্থানীয় বিএনপি নেতা বাদশা ও বিএনপি নেতা ইসমাইল গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ হয়।

দুই গ্রুপ মুখোমুখি অবস্থানে, এলাকায় উত্তেজন বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত কয়েক মাস আগে স্থানীয় বিএনপি নেতা বাদশা মিয়ার সমর্থক হারুন ব্যবসায়িক কাজে স্থানীয় আরেক বিএনপি নেতা ইসমাইলকে ৩০ লক্ষ টাকা দেয়। সম্প্রতি নিজ গ্রামে রাস্তা নির্মাণসহ বিভিন্ন বিষয়ে তাদের মধ্যে মতবিরোধে সৃষ্টি হলে তাদের ব্যবসায়িক সম্পর্কে চির ধরে। হারুন ইসমাইলের কাছ থেকে তার ৩০ লক্ষ টাকা ফেরত চাইলে সে দিতে অস্বীকৃতি জানায়।

এ ঘটনার জের ধরে গত ১১জুন, ইসমাইল গ্রুপের সমর্থক বোরহান (২৫) এর উপর হামলা চালায় বাদশা গ্রুপের সমর্থকরা। এ ঘটনার পর গত ২০জুন ভোরে ইসমাইল গ্রুপের সমর্থকরা পাল্টা হামলা চালায় বাদশা সমর্থকদের উপর। এ ঘটনায় বাদশা গ্রুপের সমর্থক স্বপন (২৬) সহ আহত হয় ৯ জন।

গজারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হারুন অর রশীদ জানান, ইসমাইল গ্রুপের রুজুর পর ইব্রাহিম,বাবু,ওয়াসকুরুনি নামে বাদশা গ্রুপের তিন সমর্থককে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে এবং আরেকটি মামলার পক্রিয়াধীন রয়েছে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *