বোনকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে ফাঁস নিলেন ভাই!

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচর এলাকার মাতবর বাজারে গলায় ফাঁস দিয়ে নাসরুল্লাহ মো. সানি (১৯) নামে এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। বাবার সঙ্গে মোবাইল ফোন নিয়ে ঝগড়ার জেরে তিনি আত্মহত্যা করেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় সানিকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেয়া হলে দুপুর ১২টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের লাশ ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে বলে পরিবর্তন ডটকমকে জানান ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (এসআই) বাচ্চু মিয়া।

নিহত সানির বাবা মহাসিন আলী পরিবর্তন ডটকমকে জানান, সানি চকবাজারে একটি বেল্টের দোকানে চাকরি করতো। সকালে সানি তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন তার এক বন্ধুকে দেয়। বিষয়টি নিয়ে তার (বাবার) সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় সানির।

একপর্যাযে সানির বাবা বাইরে চলে যান। মা সেলিনা বেগমও বাইরে ছিলেন। ঘরে ছিল সানির ছোট বোন মুনিয়া আক্তার। মুনিয়াকে ঘর থেকে বের করে দিয়ে দরজা বন্ধ করে দেন সানি। কিছুক্ষণ পর তার মা এসে দরজা নক করলে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙ্গে ভেতরে ঢুকে সানির ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান।

সানির গ্রামের বাড়ি মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলার জাপটিয়ায়। বর্তমানে তার পরিবার কামরাঙ্গীরচরের মাতবর বাজার এলাকার ঠান্ডু মিয়ার টিনশেড বাসায় ভাড়া থাকে। দুই ভাই-বোনের মধ্যে সানি ছিল বড়।

পরিবর্তন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *