প্রেম করে বিয়ে, আগের পক্ষের ছেলেকে হত্যা করল বাবা

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে করার পর আগের পক্ষের অনিক নামে সাড়ে তিন বছরের ছেলেকে আছড়ে ও গলা টিপে হত্যার অভিযোগ উঠেছে মাধব পাল নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় তাকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে উপজেলা ইছাপুরা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃত মাধব পাল (৩৫) টংগীবাড়ি উপজেলার আব্দুল্লাহপুর ইউনিয়নের আব্দুল্লাহপুর মণ্ডলপাড়া গ্রামের বলরাম পালের ছেলে। তার স্ত্রী অনিতা মণ্ডল (২২) শ্রীনগর উপজেলার হাসারা গ্রামের মৃত শিবু মণ্ডলের মেয়ে।

নিহত অনিকের মা অনিতা মণ্ডল বলেন, পারিবারিক কলহ ও অভাব-অনটনের কারণে দেড় বছর আগে আমার আগের স্বামী কৃষ্ণ দাসের সঙ্গে কোর্টের মাধ্যমে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। এর পর মাধব পালের সঙ্গে সম্পর্ক হলে আমরা পালিয়ে বিয়ে করে সিরাজদিখানের ইছাপুরায় পশ্চিম শিয়ালদী গ্রামের একটি বাড়িতে বাসা ভাড়া নেই। শনিবার বিকালে মাধব পাল কাজ শেষে বাড়ি এলে ভাত দিতে দেরি ও তাদের দাম্পত্য কলহ সব কিছু মিলে সে আমার সন্তানকে হত্যা করে।

অনিতার প্রথম স্বামী কৃষ্ণ দাস বলেন, আমার সংসারে অভাবের কারণে পালিয়ে গিয়ে মাধব পালকে বিয়ে করে অনিতা। কোর্টের মাধ্যমে আমার ছেলেকে আনতে গেলে জজসাহেব সাত বছর পর তুমি তোমার ছেলেকে পাবে বললে আমি বলেছিলাম- জজসাহেব ওরা আমার ছেলেকে মেরে ফেলবে। আজ ঠিকই ওরা আমার ছেলেকে মেরে ফেলল- আমি আমার ছেলের হত্যার বিচার চাই।

সিরাজদিখান থানার ওসি মো. আবুল কালাম জানান, নিহত অনিকের গলায় কালো চিহ্ন পাওয়া গেছে এবং তার জিহ্বা বের হয়ে গেছে। নিহতের মায়ের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মাধব পালকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *