ভাস্কর্যে-পতাকা ৭১ – জসীম উদ্দীন দেওয়ান

শান্তির পায়রা উড়িয়ে দিয়ে ৭১ জন মুক্তিসেনা।সংগ্রামী মুন্সী জনতা, দেখেছে আজ সংগ্রামী মাতা।
নিজের প্রেরণায় পনের ফুট উঁচু করে জাগ্রত করে দিলো ৭১র পতাকা।
জাহানারা ইমাম, বেগম রোকেয়া আর সুফিয়া কামালের উত্তরসুরি।
৭ মার্চের ভাষন,হৃদয়ে করে আসন, বাঙ্গালী মুক্তি সনদ ছয় দফা পুরোপুরি।
ডিসি সায়লা ফারজানা হলো এদের উত্তরসুরি।।
দেখো গর্বিত ১৬ লাখ মুন্সীগঞ্জবাসী, করো জয়ো ধ্বনি আর উচ্ছাসের দিয়ে হাসি।
দেশটা বড় মধুময় আমার, প্রানের বেশি ভালোবাসি।
গৌরবময় পতাকা দিবসে আজ দেশটাকে বড় ভালোবাসি।
শান্তির পায়রা উড়িয়ে দিয়ে ৭১ জন মুক্তিসেনা।
পতাকা ভাস্কর্য জাগ্রত করে বলে, শত্রুর মানবনা আর হানা।
সুরক্ষিত রবে ৯৫৮ বর্গ কিলোমিটার যেমন, ৫৫,৫৯৮ বর্গ কিলোমিটারের পুরো দেশটা।
নতুন প্রজন্ম চেতনা ধরো, মুক্তিযুদ্ধের রেখে রেশটা।
হাজারো সংগ্রামী জনতার মিলনে, মুন্সীগঞ্জ শহর আজ হাসে।
বাংলা মা দেখো, তোমার সন্তানেরা তোমায়, আজও কতো ভালোবাসে।
আজও উল্লাসে নাচে, মুক্তির স্বাদ আছে।
৩০ লক্ষ ঢেলে তাজা প্রাণ।
তবুও প্রস্তুত আছি মোরা, তুমি বিশ্বসেরা, হারাতে দেবনা তোমার মান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *