সিরাজ হায়দার স্মরনে ভাস্করের শোকসভা, দোয়া মাহফিল

গত ১৬ই জানুয়ারী-২০১৮, ভাস্কর সাহিত্য সংস্কৃতি গোষ্টির আয়োজনে বিশিষ্ট অভিনেতা,নাট্যকার,পরিচালক সিরাজ হায়দার স্মরনে এক শোকসভা ও মিলাদ মাহফিল ভাস্কর গোষ্টির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা কামাল আহম্মেদ সভাপতিত্বে মিরকাদিম পৌরসভাস্থিত চেতনায় একাত্তর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

সভার প্রধান অতিথি প্রবীন ক্রীড়া ব্যাক্তিত্ব মিরকাদিমরতœখ্যাত হেলালউদ্দিন আহাম্মদ, বিশেষ অতিথি সুর-লহরী সাহিত্য সংস্কৃতি গোষ্টির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি,গীতিকার,সুরকার,কন্ঠশিল্পী আঃ মতিন, ভাস্কর গোষ্টির অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা মোঃ আলী, পীর মোহাম্মদ আলী, মোঃ হোসেন মোল্লা, সৌখিন নাট্য গোষ্টির সভাপতি আমির হোসেন সেন্টু, সাধারন সম্পাদক,ইসমাইল হোসেন রাহাত, স্থৃতিচারন করেন অভিনেতা ইয়াছিন কানন, মাজহারুল ইসলাম, মোজাম্মে হক, আবুল বাসার, সৌরব আহম্মেদ জনি, হাজী আঃ জব্বার, প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ।

ভাস্কর গোষ্টির সাধারন সম্পাদক নূর হাসান মোল্লার পরিচালনায় বক্তাগন মরহুম সিরাজ হায়দারের কিশোর,যৌবন ও অভিনয় জীবনের বিভিন্ন দিক উল্লেখপূর্বক বক্তব্য প্রদান করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হেলালউদ্দিন আহম্মেদ বলেন সিরাজ হায়দারকে এতো বড় মাপের অভিনেতা হতে অনেক ত্যাগ শিকার করতে হয়েছে, সিরাজ হায়দার আমাদের গর্বের বিষয় কিন্ত দুখঃজনক হলেও সত্যি রাষ্ট্র বা কোন প্রতিষ্টান থেকে তাকে যথাযথ মূল্যায়ন করা হয় নাই। এমনকি তার মৃত্যুদেহ বহনকারী এমব্লোরেন্সের ভাড়াও ছেলেকে ধারদেনা করে পরিশোধ করতে হয়েছে। মৃত্যুর পূর্বে সিরাজ হায়দার তার চিকিৎসা ব্যয় বহনে দেশের বাড়ীর বাবার রেখে যাওয়া সম্পত্তি যাহা প্রভাবশালী ব্যাক্তির দখলে আছে তাহা উদ্যারে বিভিন্ন জনের কাছ ধর্না দিয়ে উদ্যার করতে পারেন নাই, এখন সকলের উচিত জমি উদ্যারে সিরাজ হায়দারের একমাত্র ছেলেকে সহায়তা করা।

সভাপতির বক্তব্যে কামাল আহম্মেদ বলেন সিরাজ হায়দারের স্থৃতি রক্ষার্থে সিরাজ হায়দারের নামে একটি মিলনায়তন স্থাপন করা উদ্দ্যেগ নেওয়া হবে, সভা থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় সিরাজ হায়দার রচিত দুইটি নাটক যৌথভাবে ভাস্কর ও সৌখিন নাট্য গোষ্টির প্রয়োজনায় মঞ্চায়ন করা হবে, চ্যরেটি সু-এর মাধ্যমে উপার্জিত অর্থ সিরাজ হায়দারের স্থৃতি রক্ষার্থে ব্যয় করা হবে।

আলোচনা শেষে মিলাদ মাহফিল এর মাধ্যমে সিরাজ হায়দারের আত্বার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

চেতনায় একাত্তরঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *