মোল্লাকান্দিতে আগ্নেয়াস্ত্র, গুলিসহ সন্ত্রাসী আটক

মুন্সীগঞ্জের পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী জাহাঙ্গীর সরকার ও তার সহযোগী আমির হোসেনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। রোববার সদর উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের মহেশপুর মাকহাটী গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় জাহাঙ্গীরের কাছ থেকে একটি শটগান, বিদেশি পিস্তল, গুলি ও কয়েকটি ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে।

র‌্যাব-১১-এর কোম্পানি অধিনায়ক ও সহকারী পরিচালক মো. নাহিদ হোসেন জনি জানান, গতকাল দুপুরে মোল্লাকান্দির মহেশপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার করা হয়। একই অভিযানে পলাতক আসামি মাকহাটী গ্রামের আমির হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে অস্ত্রসহ চারটি মামলা রয়েছে। তার সহযোগী আমির হোসেন পলাতক আসামি। দু’জনকেই থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতারের খবরে স্বস্তি প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী। তাদের অভিযোগ, জাহাঙ্গীর তার বাহিনী নিয়েএলাকায় অস্ত্রের মহড়া দেওয়াসহ প্রতিপক্ষকে মারধর করত। কয়েক বছর কাতারে থেকে দেশে ফিরে এসেই সন্ত্রাসী বাহিনী গঠন করে। সে ও তার সহযোগীরা এলাকায় মাদক ব্যবসা করত। প্রকাশ্যে এসব করলেও ভয়ে কেউ তাদের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুলতে সাহস পেত না। জাহাঙ্গীর ও তার লোকজনের কাছে মোল্লাকান্দি ইউনিয়নসহ আশপাশের গ্রামের মানুষও জিম্মি।

স্থানীয় আওয়ামী লীগের একাধিক নেতাকর্মী জানান, গত ইউপি নির্বাচনে জাহাঙ্গীর সরকার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে প্রকাশ্যে অস্ত্র নিয়ে নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে বাধা দেয়। এ কারণে সে সময় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী পরাজিত হয়। এর পরই জাহাঙ্গীর এলাকায় একচ্ছত্র আধিপত্য তৈরি করে মাদক ব্যবসাসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড চালিয়ে যেতে থাকে।

মহেশপুর গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দা জানান, জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও বিস্ম্ফোরক দ্রব্য আইনে সদর থানায় একাধিক মামলা থাকলেও পুলিশের খাতায় সে ছিল ‘পলাতক’। অথচ বীরদর্পে দাপিয়ে বেড়িয়ে মোল্লাকান্দির লোকজনকে তটস্ত করে রাখত সে। তাদের আরও অভিযোগ- ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় কয়েকজন নেতার শেল্টার থাকায় জাহাঙ্গীর সরকার ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে পুলিশ ব্যবস্থা নিতে পারেনি।

সাম্প্রতিক সময়ে মোল্লাকান্দিতে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র প্রদর্শন করতে দেখা যায় স্থানীয় সন্ত্রাসীদের। অস্ত্রসহ অনেকের ছবি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে নড়েচড়ে বসে স্থানীয় প্রশাসন। র‌্যাব-১১ এর ভাগ্যকূল ক্যাম্পের সদস্যরা অস্ত্রধারীদের গ্রেফতারে সাদা পোশাকে তৎপরতা চালায়। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল গ্রেফতার করা হয় জাহাঙ্গীর সরকারকে।

সমকাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *