চেতনা ফেরেনি হলদিয়া বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী আসাদুজ্জামান প্রিন্সের

দুই দিনেও চেতনা ফেরেনি মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের হলদিয়া বাজারের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী আসাদুজ্জামান প্রিন্সের। ‘সন্ত্রাসীদের’ লাঠির আঘাতে মস্তিষ্কে রক্ত জমেছে।

টুকরো টুকরো হয়ে গেছে খুলির হাড়। ভেঙে গেছে হাত-পা। অভিযুক্তদের শাস্তি চেয়ে গতকাল রবিবার পুলিশ সুপারের (এসপি) কাছে স্মারকলিপি পেশ করেছে হলদিয়া বাজার ব্যবসা পরিচালনা কমিটি। প্রিন্স উত্তর হলদিয়া গ্রামের জয়নাল মিয়ার ছেলে। তিনি রাজধানীর মহাখালীর মেট্রো হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি আছেন। পরিবার, চিকিৎসকসহ একাধিক সূত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার রাতে ৫০-৬০ জন ‘সন্ত্রাসী’ হঠাৎ হলদিয়া বাজারে হামলা চালায়। প্রথমেই তারা প্রিন্সের দোকানে ঢুকে লাঠি দিয়ে তাঁকে উপর্যুপরি আঘাত করে। ‘সন্ত্রাসীদের’ তাণ্ডবে অন্য ব্যবসায়ীরা ভয়ে দোকান বন্ধ করে দেয়। মুহূর্তেই বাজার ফাঁকা হয়ে গেলে তারা আরো কয়েকটি দোকানে হামলা চালায়। তারা চলে যাওয়ার পর প্রিন্সকে উদ্ধার করে প্রথমে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নেওয়া হয়।

অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা তাঁকে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ট হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। পরে তাঁকে পাঠানো হয় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে শয্যা (সিট) না থাকায় স্বজনরা প্রিন্সকে রাজধানীর ট্রমা সেন্টারের আইসিইউতে ভর্তি করে। কিন্তু অবস্থার উন্নতি না হওয়ায় গতকাল তাঁকে মেট্রো হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়।

কালের কন্ঠ