টঙ্গীবাড়ীতে মসজিদে জুতা চুরিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ইমাম ও ছাত্র আহত

টঙ্গীবাড়ী উপজেলার একটি মাদ্রাসার মসজিদের ভেতর নামাজের সময় জুতা চুরিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে ইমাম ও ছাত্রের আহতের ঘঁনা ঘটেছে। আহত ইমামকে গুরুতর রক্তাক্ত অবস্থায় টঙ্গীবাড়ী সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে, সোমবার রাত সাড়ে ৮টায় উপজেলার পাঁচগাও ইউনিয়ন বায়তুল উলুম ইসলামিয়া মাদ্রাসার মসজিদে ছাত্র শিক্ষক ও এলাকার মুসল্লিরা জামায়াতে এশার নামাজ আদায় করতে ছিলেন।

নামাজের রুকুতে যেয়ে মাদ্রসার পাশ্ববর্তী মান্দ্রা গ্রামের জয়নাল হাজীর ছেলে পাঁচগাও ইউনিয়ন তবলীগ জামায়াতের আমির মাওলানা ফায়জুল শেখ (২৮) দেখেন তার জুতা চুরি হয়ে গেছে।

ফায়জুল নামাজ ছেড়ে ক্ষিপ্ত হয়ে পেছনের কাতারের মুসল্লী ওই মাদ্রাসার নাজারা বিভাগের ছাত্র সুমন (৭)কে চোর বলে গলা টিপে ধরে। সুমনের গলা গোঙাআনি ও চিৎকারে নামাজের জামায়াত ভঙ্গ হয়ে যায়।

এ সময় মাদ্রাসার সহকারি শিক্ষা সচিব ও মসজিদের ইমাম মাওলানা আলতাফ হোসেন ফুলপুরী সুমনকে রক্ষা করতে গেলে ফায়জুল তাঁর উপর চড়াও হয়।

এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধলে ফায়জুল জুতার বাক্স দিয়ে আঘাত করে ইমামের মাথা ফাটিয়ে দেয়। মাদ্রাসার ইনচার্জ মুফতী মোহাম্মদ আলী জানিয়েছেন ফায়জুলের আক্রমনে শিশু সুমনের জিহ্বা বের হয়ে গিয়েছিল।

সুমনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে এবং মুসল্লীরা ইমাম আলতাফকে রক্তাক্ত অবস্থায় টঙ্গীবাড়ী সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ নিউজ