শীর্ষ সন্ত্রাসী আরিফ ২ দিনের রিমান্ডে

মুন্সীগঞ্জে সদর উপজেলার মুক্তাপুর মালিপাথর এলাকায় ডাকাতির ঘটনায় সাইফুল ইসলাম আরিফ ওরফে বাবা আরিফকে একটি মামলায় (দস্যুতা আইনে) ২দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার মুন্সীগঞ্জ সদর আমলী আদালত-১ আরিফের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। পুলিশ সূত্রে জানা যায় দস্যুতা আইনে মামলায় ৭দিনের রিমান্ড আবেদন করে আদালতে পাঠালে আদালত ২দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। অপর মামলায় (অস্ত্র আইনে) ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে আদালত আগামী রবিবার শুনানীর দিন ধার্য করে।

এ দিকে গত (১৮ সেপ্টেম্বর) সোমবার রাতে একটি অস্ত্র আইন ও অপরটি ডাকাতি আইনে দুইটি মামলা রুজু করা হয়। এই দুই মামলায় আটক দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।

অন্যদিকে সাইফুল ইসলাম আরিফের বিরুদ্ধে মুন্সীগঞ্জ সহ অন্যান্য থানায় মোট ১১টি মামলা রুজু রয়েছে। ডাকাতির ঘটনার আগে তার বিরুদ্ধে ৯টি মামলা ছিল। গত (১৮ সেপ্টেম্বর) ডাকাতির ঘটনায় আরো দুইটি মামলা হয়েছে। এ মধ্যে বেশির ভাগ মাদক মামলা। এছাড়া পুলিশের উপর হামলার ঘটনাও রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

উল্লেখ্য গত (১৮ সেপ্টেম্বর) সোমবার ভোর রাতে সুতার ট্রাকে ডাকাতি করার সময়ে এলাকাবাসী গনপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে আরিফকে। এ সময় শটগানসহ তাকে আটক কর হয়। আরিফকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পুলিশ পহারায় চিকিৎসা দিয়ে গত ২৬ তারিখে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় আনা হয়। ২৭ তারিখ সকালে আদালতে পাঠানো হয়।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার এসআই মো: ইমাম হোসেন জানায়, ডাকাতির ঘটনায় দস্যুতা ও অস্ত্র আইনে দুইটি মামলায় ৭ দিনে করে রিমান্ড চেয়ে আদলতে পাঠালে আদলত দস্যুতা আইনে ২দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। অপর মামলার রিমান্ড শুনানী আগামী রবিবার ধার্য করা হয়। তিনি বলেন, আসামী অসুস্থ থাকায় গত ২৬ তারিখে মুন্সীগঞ্জ সদর থানায় আনা হয়। ২৭ তারিখ সকালে আদালতে পাঠানো হয়।

জনকন্ঠ