জাজিরায় নেওয়া হচ্ছে পদ্মাসেতুর সুপার স্ট্রাকচার

পুরোদমে চলছে পদ্মাসেতু নির্মাণের কাজ। মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মাওয়া প্রান্ত থেকে তিন হাজার দুইশ’ টন ধারণ ক্ষমতার সুপার স্ট্রাকচার (স্প্যান) নেয়া হচ্ছে সেতুর শরীয়তপুরের জাজিরা প্রান্তে।

রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) ভাসমান ক্রেন সুপার স্ট্রাকচারটি নিয়ে জাজিরার উদ্দেশে রওনা হয়েছে।

গেলো সপ্তাহে সুপার স্ট্রাকচারটির পেইন্টিংয়ের কাজ শেষ হয়। ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের ওপর বসানো হবে এই সুপার স্ট্রাকচারটি (স্প্যান)।

পদ্মাসেতু প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান আব্দুল কাদের বাংলানিউজকে বলেন, মাওয়া প্রান্ত থেকে ভাসমান ক্রেনে করে সুপার স্ট্রাকচারটি জাজিরা প্রান্তে নেয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে সুপার স্ট্রাকচারটিকে ধূসর রং করা হয়েছে। জাজিরার প্রান্তের ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের ওপর স্থাপন করা হবে এ সুপার স্ট্রাকচার। পিলারের ওপর স্থাপনের মাধ্যমেই জাজিরা প্রান্তে দৃশ্যমান হবে পদ্মাসেতুর মূল অবকাঠামো। শুক্রবার (২২ সেপ্টেম্বর) সেতুর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর পিলারের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। জাজিরায় নেয়া হচ্ছে পদ্মাসেতুর সুপার স্ট্রাকচার

এদিকে, এরই মধ্যে পদ্মাসেতুর সার্বিক অগ্রগতি ৪৬.৫ শতাংশ হয়েছে। এছাড়া দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকের মাধ্যমে পদ্মাসেতুর খুঁটিনাটি বিষয়ে পরামর্শ নিচ্ছেন সেতু প্রকল্পের কর্মকর্তারা।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর