গজারিয়ায় গৃহবধূর আত্মহত্যা, স্বজনদের দাবি হত্যা

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার বাউশিয়া ইউনিয়নের পুরান বাউশিয়া গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে বিষপানে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। তবে গায়ে আঘাতের চিহ্ন থাকায় এটিকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড বলছেন নিহতের স্বজনরা। গৃহবধূর নাম আকলিমা বেগম (২২)।

নিহতের স্বজনরা জানান, প্রায় নয় বছর আগে পুরান বাউশিয়া গ্রামের রহুল আমিন সরকারের ছেলে আরিফ সরকারের (২৯) সাথে আকলিমার বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে আরিফ স্বস্ত্রীক প্রতিবেশী গিয়াসউদ্দিন শিকদারের বাড়ীতে ভাড়া থাকতে শুরু করে। দীর্ঘ নয় বছরের সংসারে তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে।

প্রতিবেশীরা জানান, বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। আজ সোমবার সকালেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এর কিছুক্ষণ পরেই তারা গৃহবধূর স্বামী আরিফের মাধ্যমে জানতে পারেন আকলিমা বিষপান করেছে। আহত অবস্থায় তাকে গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

গজারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: নার্গিস পারভীন জানান, মেয়েটি বিষ জাতীয় পদার্থ পান করেছে, তবে তার গায়ে আঘাতের চিহ্নও আছে।

এদিকে নিহতের বাবা আবু তাহেরের দাবী, আরিফ প্রায়ই তার মেয়েকে মারধর করত। আরিফই তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে তার মুখে বিষ ঢেলে তা আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করছে।

গজারিয়া থানার এস আই ফজলুর রহমান জানান, ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি বিষের বোতল উদ্ধার করেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা চলছে।

আমাদের সময়