সিরাজদীখানে গৃহবধূ হত্যায় একজনের যাবজ্জীবন

মঈনউদ্দিন সুমন: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখান উপজেলার জিপসাড়া গ্রামে গৃহবধূ হামিদা আক্তার হেলেনাকে হত্যা মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন ও আরেকজনকে ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত।

আজ মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে মুন্সীগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক খোন্দকার হাসান মো. ফিরোজ এই রায় দেন।

রায়ে মোজাম্মেলকে যাবজ্জীবন ও লিঞ্জু বেগমকে ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। মামলা থেকে খালাস দেওয়া হয়েছে চারজনকে।

মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অজয় চক্রবর্তী এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, যাবজ্জীবন দণ্ডাদেশ পাওয়া মোজাম্মেলকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। মামলায় ১০ জনের সাক্ষ্য নেওয়া হয়।

মামলার নথির বরাত দিয়ে অজয় চক্রবর্তী জানান, ২০১০ সালের মার্চে সিরাজদীখানে স্বর্ণালংকারের লোভে দুর্বৃত্তরা অপহরণ করে গৃহবধূ হামিদা আক্তার হেলেনাকে। পরে তাঁকে হত্যা করা হয়। তাঁর ব্যবহার করা মুঠোফোনের কললিস্টের সূত্র ধরে সিরাজদীখান থানা পুলিশ মোজাম্মেলকে আটক করে। পরে হেলেনার ভাই নাজমুল হাসান বাদী হয়ে এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করেন। সেই মামলার দীর্ঘ শুনানির পর আজ এই রায় দেওয়া হয়।

এনটিভি