অচলায়তনের বাইরে শ্রীনগর আওয়ামী লীগ!

একই মঞ্চে ৪ মনোনয়ন প্রত্যাশী ও বর্তমান এমপির সমর্থকরা
আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে শোক দিবসের আলোচনা ও দোয়া মাহফিলের অনুষ্ঠানে একই মঞ্চে অতিথী হিসাবে উপস্থিত হয়েছিলেন মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে আওয়ামী লীগের ৪ মনোনয়ন প্রত্যাশী ও বর্তমান এমপির সমর্থকরা। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার হাসাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশী সিরাজদিখান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ সভাপতি গোলাম সারোয়ার কবির, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাবেক স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা ঃ বদিউজ্জামান ডাবলু, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সাবেক সহ সম্পাদক মাকসুদ আলম ডাবলু বক্তব্য রাখেন। এই চার মনোনয়ন প্রত্যাশীর বাইরে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের দুই নেতা তাদের বক্তব্যে বর্তমান এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষের পক্ষে কথা বলেন। মঞ্চে উপস্থিত ৪ নেতা এতদিন আলাদা আলাদা ভাবে তৃণমূলে ছুটাছুটি করলেও এই প্রথম তারা একই মঞ্চে উপস্থিত হয়ে বক্তব্য রাখেন।

বর্তমান এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ দির্ঘদিন ধরে অসুস্থ্য হয়ে তার নির্বাচনী এলাকায় অনুপুস্থিত রয়েছেন। মঞ্চে বক্তব্য দিতে গিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম মামুন ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ফিরোজ আল মামুন স্মৃতি চারণ করে বলেন, এতদিন সুকুমার রঞ্জন ঘোষ শোক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথী হিসাবে উপস্থিত থেকে আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব দিতেন। অপরদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক শেখ মো ঃ আলমগীর বলেন, শোকের মাস চলে যাচ্ছে। বিভিন্ন ইউনিয়নে তৃণমূল আওয়ামী লীগের কর্মীরা নিজেদের উদ্যোগে শোক দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচী পালন করে আসছে। সেখানে অনুপুস্থিত উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি প্রশ্ন রাখেন কার নেতৃত্বে এগুচ্ছে শ্রীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগ। শেখ মো ঃ আলমগীর এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষকে ইঙ্গিত করে বলেন, গত ২৬ মার্চ এর আগে শ্রীনগর আওয়ামী লীগে একজনই যা বলতেন তাই হতো। আওয়ামী লীগের কোন অনুষ্ঠানে তার কথার বাইরে অন্য কারো মতামতের সুযোগ ছিলনা। ২৬ মার্চের পর সে অচলায়তন ভেঙ্গেছে বলেই আজ একই মঞ্চে উপস্থিত হয়ে আমরা কথা বলার সুযোগ পাচ্ছি। এতে লাভ হচ্ছে আওয়ামী লীগেরই। ফলে তৃণমূল আওয়ামী লীগ আরো শক্তিশালী হয়ে উঠেছে। উল্লেখ্য গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে গোলাম সারোয়ার কবির ও এমপি সুকুমার রঞ্জন ঘোষ এর দুই গ্রুপে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এর পরদিন সুকুমার রঞ্জন ঘোষ প্রতিবাদ সমাবেশ করার সময় অসুস্থ্য হয়ে পরেন। ওই ঘটনার পর থেকেই তিনি তার নির্বাচনী এলাকা মুন্সীগঞ্জ-১ আসনে অনুপুস্থিত।

এর আগে সভাস্থলে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কয়েকবার ত্রিমুখী উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে আয়োজকদের প্রচেষ্টায় সফল ভাবে অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়। হাসাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আহসান হাবীবের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা যুবলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মশিউর রহমান মামুন, কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা কাজী পিউল ও আবুল হোসেন, শাহিনুর আলম শাহীন, ওয়াহিদুর রহমান জিঠু, পারভেজ শিকদার পনির প্রমুখ।