মুন্সীগঞ্জের নাম বিক্রমপুর করার দাবি

মুন্সীগঞ্জ জেলার নাম পরিবর্তন করে বিক্রমপুর করার দাবি জানিয়েছেন অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বাংলাদেশ আও্য়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মন্ডলীর সাবেক সদস্য ড. নূহ -উল-আলম লেনিন।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) বিক্রমপুর -মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রকল্যাণ পরিষদ আয়োজিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ দাবি জানান জানানো হয়। তিনি বলেন, বিক্রমপুরের ঐহিত্যর নাম বিশ্বব্যাপী পরিচিত। এ অঞ্চলের দেড় হাজার বছরের পুরানো সভ্যতা মাটির নিচে নাগেশ্বরীতে পাওয়া গেছে। যা অতীত বাংলার সংস্কৃতি বিষয়ে জ্ঞানার্থী শিক্ষার্থীদের জ্ঞান দানে সহায়ক হবে।

বিক্রমপুরের ১০ হাজার বইয়ের সমৃদ্ধ একটি লাইব্রেরীর পক্ষ থেকে ফিলোশিপ গ্রহণে আগ্রহী গবেষকদের ফিলোশিফ দেওয়ার ঘোষণা দেন এ প্রবীন রাজনৈতিক।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিক্রমপুর-মুন্সীগঞ্জ ছাত্রকল্যাণ পরিষদের প্রধান সমন্বায়ক আবু তাহের ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক নাহিদুল ইসলাম। জবি আবৃত্তি সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কবিরের সঞ্চালনায় ও বিক্রমপুর জবি বিক্রমপুর মুন্সীগঞ্জ ছাত্রকল্যাণ পরিষদের সভাপতি আল আমিনের সভাপতিত্বে জবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, বিক্রমপুরের ঐতিহ্য সংরক্ষণে এ অঞ্চলের তরুণ প্রজম্মকে এগিয়ে আসতে হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ-সম্পাদক গোলাম সরোয়ার কবির বলেন, ঐতিহ্য বিক্রমপুরের দরিদ্র শিক্ষার্থীদের অতিশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সর্বোচ্চ ছাড়ে পড়ালেখা করার সুযোগ দিবে। প্রয়োজনে বিনাবেতন দরিদ্র মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষার সুযোগ দেওয়ার ঘোষণা দেন অতিশ দীপঙ্কর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ট্রাস্টি সদস্য।

আরো বক্তব্য রাখেন জবি প্রাণিবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পাদক এম আব্দুর রহমান জীবন, উপ- সাহিত্য সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সুজন প্রমুখ।

বিক্রমপুর চিত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *