দুই মহাসড়কে পরিবহন সংকট, দুর্ভোগে যাত্রীরা

মঈনউদ্দিন সুমন: মুন্সীগঞ্জ অংশের ঢাকা-চট্টগ্রাম এবং ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে গণপরিবহন সংকটের জেরে দুর্ভোগে পড়েছে রাজধানীমুখী যাত্রীরা। আজ শনিবার সকাল থেকেই ঈদের ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফিরতে শুরু করে মানুষ। কিন্তু যাত্রীদের চাপ সামাল দিতে পরিবহন সংকট থাকায় দীর্ঘ সময় ধরে অপেক্ষা করতে হচ্ছে।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ভবেরচর হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) হাসেম মুন্সী বলেন, ‘ঢাকামুখী যাত্রীদের আনারপুরা, ভবেরচর এলাকায় যাত্রীদের বাসের অপেক্ষায় থাকতে হচ্ছে। ঈদ শেষে যাত্রীদের অতিরিক্ত চাপ বেড়ে যাওয়ায় এই সমস্যা দেখা দিয়েছে। অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাইনি, পেলে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের হাসাড়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই গোলাম মোর্শেদ তালুকদার জানান, ঢাকা-মাওয়ার ছনবাড়ি মোড়, দোগাছি এলাকায় যাত্রীদের অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। কাল থেকে অফিস শুরু হওয়ায় সবাই ঢাকামুখী হতে ব্যস্ত। অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পেয়েছি, ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

গজারিয়ায় বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলেন আয়েশা রহমান। তিনি যাবেন গাবতলী। তিনি জানান, বাসের জন্য দুই ঘণ্টা ধরে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। নির্দিষ্ট সময়ের থেকে অনেক বেশি সময় লাগছে। অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছে লেগুনা, বাসগুলোতে।

ঈদ আনন্দ প্রিয়জনের সঙ্গে শেষ করে কর্মস্থলে ফিরতে রাজধানীমুখী হচ্ছে মানুষ। তবে পরিবহন সংকট এবং অতিরিক্ত ভাড়ার কারণে বিপাকে পড়েছে যাত্রীরা।

এনটিভি