শ্রীনগরে বন্ধুর প্রেমিকাকে অপহরণ : ২ দিন পর উদ্ধার!

আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে প্রেমিকার হাত ধরে পালিয়ে যাওয়ার সময় এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করেছে ওই প্রেমিকেরই বন্ধু। অপহরণের ২ দিন পর পুলিশ বুধবার রাতে উপজেলার কামারগাও এলাকা থেকে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে। পরে অপহরণকারী ও ওই ছাত্রীর প্রেমিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার কামারগাও কাজী ফজলুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী ও বাঘড়া এলাকার মাগডাল গ্রামের কুয়েত প্রবাসী বাহাদুর মিয়ার মেয়ে কেয়া মনি (১৫) এর সাথে পশ্চিম কামারগাও গ্রামের আকরাম পোদ্দারের ছেলে রুহুল আমিন ( ২০) ফুঁসলিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। কেয়ামনি প্রেমের টানে গত ২৭ জুন সন্ধ্যা রাতে রুহুল আমিনের কাছে চলে আসে।

বিষয়টি টের পেয়ে পূর্ব বাঘড়া গ্রামের সোহরাব মোল্লার দ্বিতীয় স্ত্রীর বখাটে ছেলে আকাশ (২২) বন্ধু রুহুল আমিনকে সহায়তা কারার অজুহাতে তার পাশে এসে দাঁড়ায়। একপর্যায়ে আকাশ ও তার সহযোগীরা ওই রাতেই রুহুল আমিনের চোখ ফাঁকি দিয়ে কেয়ামনিকে অপহরণ করে। রুহুল আমিন উপায় না দেখে বিষয়টি কেয়ামনির পরিবারকে জানায়। পরদিন কেয়ামনির মা রহিমা বেগম বাদী হয়ে মেয়েকে অপহরণের অভিযোগে শ্রীনগর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। বুধবার রাতভর অভিযান চালিয়ে পুলিশ কামারগাও এলাকার নদীর পার থেকে কেয়ামনিকে উদ্ধার করে। পরে তার অপহরণকারী আকাশ ও প্রেমিক রুহুল আমিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অপহরণে সহযোগীতার অভিযোগে আকাশের বাবা সোহরাব মোল্লাকেও মামলায় আসামী করা হয়েছে।

মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা শ্রীনগর থানার এসআই ফিরোজ জানান, ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে। আসামীদের সাথে আরো কেউ জড়িত আছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *