মোল্লাকান্দিতে চাঁদা দাবিতে ঝুট ব্যাবসায়ীকে কুপিয়ে জখম

মুন্সীগঞ্জের মোল্লাকান্দিতে চাঁদার দাবিতে ঝুট ব্যাবসায়ীকে কুপিয়ে মারাত্বকভাবে জখম করে আহত করেছেন দূর্বৃত্তরা। মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের বড়মোল্লাকান্দি গ্রামে চাঁদার দাবিতে ঝুটব্যাবসায়ী দ্বীন ইসলামকে কুপিয়ে মারাত্বকভাবে আহত করে। আহত দ্বীন ইসলামের আর্তচিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসে। আহত ব্যাবসায়ীর অবস্থা অবনতি হলে তাকে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার ঢাকা মেডিকেলে রেফার্ড করেন।

ঝুট ব্যাবসায়ী দ্বীন ইসলামের স্ত্রী রেখা আক্তার জানান, বড় মোল্লাকান্দি গ্রামে বাদল ও তার লোকজন দীর্ঘদিন ধরে আমার স্বামীর কাছ থেকে চাঁদা দাবি করে আসছে।

ঈদ উপলক্ষে ২৬ জুন সোমবার ঝুট ব্যাবসায়ী দ্বীন ইসলাম নিজ বাড়ি বড় মোল্লাকান্দি গ্রামে আসে। ঈদের দিন নামাজ শেষে বাদল ও তার লোকজন দ্বীন ইসলামকে আটক করে চাঁদার টাকা দাবী করলে, তা দিতে অস্বীকার করায় তাকে দা দিয়ে এলোপাথারিভাবে কুপিয়ে জখম করে। পরে দ্বীন ইসলামের শরীরের উপর ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়।

এ ব্যাপারে মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ওসি ইউনুচ আলী জানান, দ্বিন ইসলাম চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বিষয়টি দলীয় কোন না। দ্বিন ইসলামকে যেই মেরে আহত করুক না কেন, তাকে পুলিশ আইনের আওতায় আনা হবে। আহত দ্বিন ইসলাম বড় মোল্লাকান্দি গ্রামের মৃত অফিজ উদ্দিন ব্যাপারির ছেলে।

তাজাখবর