শ্রীনগরে প্রবাসীর বাবাকে আটকে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি

মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরের বাসিন্দা কাতার প্রবাসীর বাবাকে নারায়ণগঞ্জে ডেকে এনে অপহরণ করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিল অপহরণকারী চক্র। মঙ্গলবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের বন্দর থানা পুলিশ বন্দরের ফুলহর এলাকা থেকে অপহরণের শিকার হুমায়ূন গাজী (৫২) নামে এক ব্যক্তিকে উদ্ধার ও অপহরণকারী আল মামুনকে (২৪) গ্রেফতার করে।

জানা গেছে, গত সোমবার বিকেলে মুন্সিগঞ্জের শ্রীনগরের বাসিন্দা কাতার প্রবাসী সোহাগ গাজীর পিতা হুমায়ূন গাজীর মোবাইলে কল করে জানানো হয় তার ছেলে তাদের জন্য কিছু মালামাল পাঠিয়েছে। তাকে নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার মদনপুরে এসে মালামাল নিয়ে যেতে বলা হয়। হুমায়ন গাজী মদনপুরে আসলে তাকে অপহরণ করে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারী চক্রটি। এ ঘটনায় শ্রীনগর থানায় অভিযোগ হলে শ্রীনগর থানা পুলিশ বন্দর থানা পুলিশের সহায়তায় অপহৃত হুমায়ূন গাজীকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে বন্দর থানায় নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে হুমায়ূন গাজী জানান, তার ছেলে সোহাগ গাজী কাতারে অবস্থান করে। তার ছেলে কিছু মাল পাঠিয়েছে বলে আল মামুন তাকে ফোন করে বন্দরের মদনপুরে এসে অপহরণ করে তার নিজ বাড়িতে নিয়ে অন্ধকার কক্ষে আটক রেখে তার পরিবারের কাছে মুক্তিপণ হিসেবে ১০ লাখ টাকা চায়।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি আবুল কালাম বলেন, অপহরণকারী আল মামুন ফোন করে হুমায়ূন গাজীকে মাল নিতে মদনপুরে এনে তার নিজ বাড়িতে আটক রেখে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। এ ঘটনায় শ্রীনগর থানায় অভিযোগ হলে শ্রীনগর থানা পুলিশকে সহায়তা করার জন্য বন্দর পুলিশ কাজ করেছে।

পরিবর্তন