জাকিয়া মুনের ৩ কোটি টাকার গাড়ি বাজেয়াপ্ত

মডেল জাকিয়া মুনের আলোচিত ৩ কোটি টাকার বিলাসবহুল পোরশে গাড়ি রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।একই সাথে অভিযুক্তকে দেড় লাখ টাকা ব্যক্তিগত জরিমানাও করা হয়েছে।

সোমবার (১২ জুন) বিকেলে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তের মহাপরিচালক ড.মঈনুল খান পূর্বপশ্চিমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে গত ৬ জুন ২০১৬ তারিখে গুলশান ১ এর রোড ৩৩, বাড়ি ১০ এর পার্কিং থেকে গাড়িটি আটক করা হয়। আটককালে গাড়িতে ব্রিটিশ নম্বরযুক্ত (AS05AUM) ছিল।

ব্রিটেন থেকে কার্নেট সুবিধায় এনে শর্ত অনুযায়ী পোরশে গাড়িটি আবার বিদেশে না নিয়ে অবৈধভাবে মডেল জাকিয়া মুন ব্যবহার করছিলেন। এতে সরকারের প্রায় দুই কোটি ২৭ লাখ টাকা ফাঁকি দেওয়ায় গাড়ির মূল্য দাঁড়ায় প্রায় ৩ কোটি টাকা।

এই অপরাধে আরো দুজন সহযোগীকেও অভিযুক্ত করা হয়। তারা হলেন মডেল মুনের স্বামী গার্মেন্টস ব্যবসায়ী শফিউল আলম মহসীন ও গাড়ির আমদানিকারক ব্রিটিশ নাগরিক জনাব আফজাল আলী।

তিনি বলেন, শুল্ক গোয়েন্দা অনুসন্ধানশেষে তাদের বিরুদ্ধে শুল্ক ফাঁকির অভিযোগ তৈরি করে বিচারের জন্য কাস্টমস হাউসের কমিশনারের নিকট প্রেরণ করা হয়। দীর্ঘ তদন্ত ও বিচারিক প্রক্রিয়াশেষে কমিশনার শুল্ক আইনে আজ এই রায় প্রকাশ করেন।

এখন মডেল জাকিয়া মুনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা দায়েরের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

পূর্ব পশ্চিম

Comments are closed.