জেলা ছাত্রলীগ সভাপতির মুক্তির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল পুলিশী বাঁধায় পন্ড

হুমায়ুন কবির: ডিস ব্যবসাকে কেন্দ্র করে মারামারির মামলায় জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে মুন্সীগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ফয়সাল মৃধাকে কারাগারে পাঠিয়ে দেয় আদালত। বুধবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ আমলী আদালত-১ (সদর) এ আদেশ দেন। আগামী রবিবারের মধ্যে সভাপতির জামিন না হলে ছাত্রলীগের সকল নেতাকর্মী জেলে যাওয়ার ঘোষণা দেন সদর থানার সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মাহমুদুল হক লাকুম।

সদর থানা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: সুরুজ বলেন, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল, আমাদের নেতা ফয়সাল মৃধা আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। কিন্তু আদালত সামন্য একটি মামলায় তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। আদালতের এহেন কাজের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি।

সাজ্জাদ হোসেন সাগর বলেন, আমরা মুজিবের সৈনিক, প্রশাসনের প্রতি আমাদের আস্থা রয়েছে তারা সুবিচার করবেন বলেও আমরা আশাবাদি। ধার্য্য তারিখের মধ্যে যদি আমাদেরে সভাপতি ফয়সাল মৃধাকে আমাদের মাঝে ফিরিয়ে না দেওয়া হয় মুন্সীরহাট থেকে কাঁচারী, কাঁচারী থেকে লঞ্চঘাট, লঞ্চঘাট থেকে কাটাখালীর সকল সড়ক অচল করে দেওয়া হবে।

আদেশের পরপরই জেলা ছাত্রলীগের নসিবুল ইসলাম নোবেলের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি জাতীয় অনলাইন প্রেসক্লাবের সামনের রোড থেকে বের হয়ে কিছু দুর যেতে না যেতেই পুলিশী বাঁধার সম্মুখীন হয়। এক পর্যায়ে তাদের বিক্ষোভ মিছিল পন্ড হয়ে যায়। পরবর্তীতে বিক্ষোভ সমাবেশ করে নেতারা। এ সময় সভাপতির মুক্তি চেয়ে বক্তব্য রাখেন জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মো: সাহাদাত হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার হাবীব, জেলা শাখার সদস্য রায়হান আহম্মেদ রাফী, শহর ছাত্রলীগের সভাপতি নসিবুল ইসলাম নোবেল, সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন সাগর, সদর থানা সভাপতি মো: সুরুজ মিয়া, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হক লাকুম, সদর থানার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাহাত আহম্মেদ শাকিল, কলেজ শাখার সহ-সভাপতি মো: রাব্বি, সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ মাহমুদ, দপ্তর সম্পাদক শ্যামল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: রিফাত, পলেটেকনিক্যাল কলেজের সভাপতি মো: তারিফ, সাধারণ সম্পাদক মো: আশিক, বজ্রযোগিনী ইউনিয়নের সভাপতি সাইফুল ইসলাম রনি, সাধারণ সম্পাদক সানি, পঞ্চসার ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক শুভ মোল্লা প্রমুখ।

মুন্সিগঞ্জ ক্রাইম টিভি

Comments are closed.