দোহারের মুকসুদপুরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

ঢাকার দোহার উপজেলার মুকসুদপুর ইউনিয়নের মৈইতপাড়া গ্রামে বিষপানে ফাতেমা আক্তার (২০) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। গত রোববার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফাতেমা মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর থানার বাঘড়া ইউনিয়নের বালুরচক গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে। নিহত ফাতেমার পিতা আব্দুল মান্নান বলেন, দুই বছর আগে আমার মেয়ে বিয়ে দিয়েছি। বিয়ের পর থেকেই আমার মেয়েকে নানা রকম শারীরিক ও মানষিকভাবে নির্যাতন করত তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এ নির্যাতন না সইতে পেরে আমার মেয়ে বিষপান করতে বাধ্য হয়।

তিনি আরো জানান, রবিবার ভোর চারটায় মেয়ের শ্বশুরবাড়ি থেকে আমাদের খবর দেওয়া হয় ফাতেমা বিষপান করেছে। এ খবর পেয়ে তিনি দ্রুত শ্রীনগর থেকে মেয়ের শ্বশুরবাড়িতে আসেন। পরে তিনি ফাতেমাকে দোহার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েনিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফাতেমাকে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ (মিটফোর্ড) হাসপাতালে পাঠান। হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার এক পর্যায়ে বোরবার দুপুরে চিকিৎসক ফাতেমাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহত ফাতেমার পিতা আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে নিহতের স্বামী হান্নান ফকির এবং শ্বশুর মোন্নাফ ফকিরের বিরুদ্ধে দোহার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ বিষয়ে দোহার থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম শেখ বলেন, অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। লাশের ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর কেউ দোষী সাব্যস্ত হলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ

Comments are closed.