৪৪ বছরেও একটি সেতু পায়নি চর কিশোরগঞ্জের মানুষ

নাদিম মাহমুদ: স্বাধীনতার ৪৪ বছর পেরিয়ে গেলে ও মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার চরকিশোরগঞ্জ (মোল্লা পাড়া) গ্রামের ১০ হাজার মানুষের যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম একটি সেতু নির্মাণের দাবি এখনও বাস্তবায়িত হয়নি। একমাত্র ভরসা নৌকা দিয়ে পারাপার এ ডিজিটাল যুগে শহরের মধ্য এটা যেন অকল্পনীয়।

বিগত সময়ে সব রাজনৈতিক দলই নির্বাচন এলে প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসে। কিন্তু আজো এসব দল তাদের কথা বাস্তবায়ন করতে পারেনি। এই এলাকার মানুষের দীর্ঘ দিনের দাবি- ধলেম্বরী শাখা নদী কালিদাস সায়ের প্রায় ৪শ ফুট লম্বা নদীতে একটি সেতুর।

মুন্সীগঞ্জ পৌর সভার ৭নং ওয়ার্ডে চরকিশোরগঞ্জ এলাকা। এ এলাকার চার পাশে নদী। ওই এলাকায় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যলয়ে ও তিনটি মসজিদ আছে। স্বাধীনতার এতো বছর পেরিয়ে গেলেও গ্রামবাসীর যাতায়তের মাধ্যম এখনো নৌকা। এ নৌকা দিয়ে পারাপারের সময় প্রায়ই নৌ-দুর্ঘটনা ঘটে। এই এলাকার প্রায় ১০ হাজার মানুষ তাদের শিশু সন্তানদের নিয়ে সবসময় আতংকে দিন কাটার।

চরকিশোরগঞ্জ এলাকার কাউন্সিলর সুলতান বেপারীসহ এলাকার, উমর আলী ভান্ডারী, নুরু উদ্দিন নুরু, আলম মাদবর, গিয়াসউদ্দিন, জহির উদ্দিন, গাজি হোসেন, খোরশেদ মোল্লা, মির্জা হোসেন, আলমগীর, মামুন মিয়া, গ্রামের লোকজন ঢাকাটাইমসকে জানান, এই ৪শ ফুট লম্বা ব্রিজটি হয়ে গেলে আমাদের দুর্ভোগ কমে যাবে। নদী পারাপারে ছেলেমেয়েদের নিয়ে আতংক কেটে যাবে অভিভাবকদের।

ঢাকাটাইমস