মিরকাদিমে মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন

তৃণমূল মানুষের মাঝে স্বাস্থ্য সেবা পৌছে দেয়ার লক্ষে মিরকাদিমে ১০ শয্যা বিশিষ্ট মা ও শিশু কল্যান কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন হয়েছে। রবিবার দুপুরে সদর উপজেলার মিরকাদিম পৌর এলাকায় এই হাসপাতালটির ভিত্তি প্রস্থর স্থপান করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডঃ মৃণাল কান্তি দাস।

মিরকাদিম পৌর মেয়র মোঃ শহিদুল ইসলাম শাহিনের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন, জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ শহিদুল ইসলাম,স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আনোয়ার আলী,রামপাল ইউপি চেয়রম্যান বাচ্চু শেখ,নারায়নগঞ্জ জেলার রুপনগর ইউপি চেয়ারম্যান নওশেদ আলী, মিরকাদিম পৌরসভার উপ-সহকারী প্রকৌশলী জেবিন সুলতানা,পৌর কাউন্সিলর আবজাল হোসেন,আব্দুল মজিদ ও আবু তাহের প্রমুখ।

বক্তরা বলেন, মিরকাদিম পৌর মেয়র হলো মিরকাদিমের উন্নয়নের রূপকার। মিরকাদিমের মেয়র দ্বিতীয় কলকাতা হিসাবে পরিচিত ঐতিহ্যবাহী হারিয়ে যাওয়া কমলা ঘাট বন্দরটি পূনরায় উজ্জিবিত করার লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে। তার কারনে মিরকাদিম ফায়ার স্টেশনটি আবারো আধুনিক ফায়ার সার্ভিস স্টেশন হিসাবে পূনরায় চালু হচ্ছে। তাছাড়া পুরো মিরকাদিমের রাস্তা প্রশস্ত করনের ব্যাপারেও মেয়র শাহীন জোরালোভাবে কাজ করেছেন প্রশস্ত রাস্তা নির্মাণের।

এসময় সংসদ সদস্য মৃণাল কান্তি দাস বলেন,মানুষের দৌর ঘোড়ে স্বাস্থ্য সেবা পৌছে দেয়ার লক্ষে বর্তমান সরকার স্বাস্থ্য ক্ষাতে ব্যাপক উন্নতি করেছে। খুব শিঘ্রহি এমন সময় আসবে চিকিৎসার জন্য কাউকে বাহীরে যেতে হবেনা। অন্যান্য দেশের লোকজন আমাদের দেশে চিকিৎসা সেবা নিতে আসবে সেই দিন খুব ধুরে নয়। কমলা ঘাট ফায়ার স্টেশনটি আবারো চালু হবে অচিরেই। এছাড়াও তিনি বলেন, এ সরকারের লক্ষ স্বাধীনতার সুফল ঘরে ঘরে পৌছানো।

মুন্সিগঞ্জ নিউজ