লৌহজংয়ে হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন

সোমবার লৌহজংয়ে হানাদার মুক্ত দিবস উৎযাপন হয়েছে। সাবেক সংসদ সদস্য মো. ইকবাল হোসেন জানান, ১৯৭১ সালের ১৪ নভেম্বর ভোর রাতে মুক্তি বাহিনী বর্তমান লৌহজং থানা আক্রমন করে। থানার ভিতরে অবস্থানরত পাক হানাদার বাহিনী পদ্মা নদী পাড়ি দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে মুক্তিবাহিনীরা লৌহজং হাসপাতাল, আর্মি ক্যা¤পসহ বিভিন্ন স্থাপনা হানাদার মুক্ত করে সেখানে স্বাধীন বাংলার পতাকা উত্তোলন করে লৌহজংকে হানাদার মুক্ত ঘোষনা করে। সেই পতাকা তাদের কাছে আজ ও সংরক্ষিত আছে।

সোমবার সকাল ১০ ঘটিকায় লৌহজং থানা কমপ্লেক্সের সামনে লৌহজং মুক্ত দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়। কর্মসূচিতে ছিল পতাকা উত্তোলন, মার্চ পাশ ও আলোচনা সভা। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুদ্ধকালীন কমান্ডার সাবেক সাংসদ মো. ইকবাল হোসেন। বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চন্দন কুমার সাহা ও বিমান বিমান বাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা এজি ফারুক গনিসহ মুক্তিযোদ্ধা এবং স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

জনকন্ঠ