জেলা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিট অনুমোদিত, পদ পেলেন যারা

জেলা সম্মেলনের ১৩মাস পরে পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করেছে মুন্সিগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগ। প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী এই সংগঠনটির পূর্ণাঙ্গ কমিটি বিলম্বিত হওয়ায় এ নিয়ে ‘অামার বিক্রমপুর’-এ একটি প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়েছিলো।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন অনুমোদিত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের প্যাডে ৪নভেম্বর এ কমিটির অনুলিপি গণমাধ্যমের কাছে পাঠানো হয়েছে।

১৫১ সদস্যের এই কমিটির সভাপতি ফয়সাল মৃধা ও সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ অাহম্মেদ পাভেল।

পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহ-সভাপতিরা হলেনঃ
১. ফরহাদ হোসেন ইমন (লৌহজং) ২. মহসিন রেজা ৩. নিবির অাহম্মেদ ৪. ইসরাত হাসান শান্তনূর ৫. রমজান হোসেন বাবু ৬. মোঃ মাকসুদ হাসান ৭. অালমগীর হোসেন ৮. মির্জা অারিফ ৯. মোঃ সাজ্জাত হোসেন সাগর ১০. মোঃ বিল্লাল হোসেন মোল্লা ১১. অাওলাদ হোসেন ১২. মোঃ ইমন খান ১৩. ইয়ামিন শেখ ১৪. খালেদ মাহমুদ শাওন ১৫. অাশরাফুল ইসলাম জয় ১৬. মোঃ নাঈম মোল্লা ১৭. মিমুন দাস ১৮. জুয়েল দেওয়ান ১৯. অাকরাম শেখ মানিক ২০. ডিপেল শেখ ২১. শাহাদাত হোসেন।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন যারাঃ
১. অাপন দাস ২. মোঃ মোস্তাকিন ৩. মোঃ ফয়সাল অাহম্মেদ হাসান ৪. মোঃ শামিম ৫. নয়ন তালুকদার ৬. মেহেদী হাসান রবিন ৭. অাশিকুর রহমান রজিন ৮. শাহরিয়ার হাবিব ৯. সেলিম বেপারী।

সাংগঠনিক সম্পাদক হলেন যারাঃ
১. মোঃ রুবেল ২. মনিরুজ্জামান রুবেল ৩. অাওলাদ হোসেন নিরব ৪. মোঃ ফরহাদ হোসেন ৫. নূরে অালম সিদ্দিকী ৬. মোঃ দীন ইসলাম ৭. সাব্বির শেখ ৮. মশিউর রহমান সিজু ৯. চিশতীয়া বেপারী।

প্রচার সম্পাদকঃ সাজ্জাদ হোসেন।
দপ্তর সম্পাদকঃ শিহাব অাহমেদ।

কমিটিতে ৫জন নারী রয়েছেন। এছাড়া সিরাজদিখানের কোলা ইউনিয়নের নিহত ছাত্রলীগ নেতা অাসিফের বোন নূসরাত জাহান তনিমা সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক পদ পেয়েছেন।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল মৃধা বলেন, ‘রাজপথের রাজনীতিতে যারা সক্রিয় ও মেধাবী তাদের কমিটিতে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে’।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ অাহম্মেদ পাভেল জানান, ‘ক্লিন ইমেজ’ ও পরিচ্ছন্নদের নিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করা হয়েছে। বিগত দিনে যারা রাজনৈতিক নিপীড়নের স্বীকার ও তৃণমূলে সক্রিয় ছিলো কিন্তু পদবঞ্চিত ছিলো তাদেরকে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে।’

অামার বিক্রমপুর