ভোট কেনার সময় প্রার্থীসহ গ্রেফতার ৫

মুন্সীগঞ্জে ভোট কেনার সময় প্রার্থীসহ গ্রেফতার ৫ জন গ্রেফতার হয়েছে। শুক্রবার রাতে টঙ্গীবাড়ী উপজেলার সেরাজাবাদ থেকে তাদের পুলিশ পাকড়াও করে। উপজেলাটির যশলং ইউনিয়নের দুটি কেন্দ্রের উপনির্বাচন সোমবার। ৭নং ওয়ার্ডের ফুটবল প্রতীকের সদস্য প্রার্থী এস এম আকরাম হোসেনকে (৪৪) হাতেনাতে চার সহযোগী এবং নগদ ১৪ হাজার ৩ শ’ টাকাসহ জনতা আটক করে পুলিশের সোপর্দ করেছে।

পুলিশ জানায়, যশলং ইউপি নির্বাচনে বিএনপি প্রার্থী খাইরুল কবির কাজল হাওলাদারের পক্ষে তারা ভোট কিনছিল বলে প্রথমিক তথ্যে জানা যায়। গ্রামটির প্রবাসী নুরুজ্জামানের বাড়িতে অবৈধভাবে টাকা দিচ্ছিল- সেরজাবাদ গ্রামের এই সদস্য প্রার্থী আক্তার হোসেন, জুলহাস সেখ, কালু সেখ, আঃ রহমান সেখ এবং কাঠাদিয়া গ্রামের রিয়াজউদ্দিন হাওলাদার।

টঙ্গীবাড়ী থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন জানান, আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। শনিবার তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তবে নির্বচনী আইন অনুযায়ী মোবাইল কোর্টে তাক্ষনিকভাবে বিচার না করায় এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। কিন্ত পুলিশ বলেছে- নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট না আসায় মোবাইল কোর্ট হয়নি। ইউএনও স্টেশনে ছিলেন না। অন্যদিকে এডিএম একেএম শওকত আলম মজুমদার জানান, এটি নিয়মিত মামলা হতে পারে। এ নিয়ে ক্ষমাতাসীন দলের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে।

উল্লেখ্য, গত ৭ই মে ওই ইউপি নির্বাচনে ভোট গ্রহনের সময় ভোট কারচুপির অভিযোগে বায়হাল এবং সেরজাবাদ কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়। স্থগিত ওই দুই ভোট কেন্দ্রে কাল ৩১ অক্টোবর ভোট গ্রহন হবে।

জনকন্ঠ

Comments are closed.