টঙ্গীবাড়ী ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

টঙ্গীবাড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসানকে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মেহেদি হাসান জানান, সোমবার রাত ১০টার দিকে আমি আলদী বাজার হতে বাড়ি ফিরছিলাম। বাজরের মাঝামাঝি আসলে আলদী গ্রামের শাহাবুদ্দিন, ইব্রাহিম হালদার, সুমন হালদার, সেলিম হালদার এবং জামাই সেলিম আমাকে চাপাতি ও বটি দিয়ে ডান হাত, বুকে, মাথায় ও রানে ১১টি কোপ মেরে জখম করে।

এ সময় আমি চিৎকার করলে এলাকাবাসী উদ্ধার করে প্রথমে আমাকে টঙ্গীবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্র হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।

সে আরো জানায়, ওই সন্ত্রাসীরা আমার কাছে আলদি বাজারের গরুর হাট ইজারা থেকে ২ লক্ষ টাকা চাদাঁ দাবী করে। ওই টাকা না দেওয়ায় তারা আমার ওপর এ হামলা চালায়।

এ ব্যাপারে টঙ্গীবাড়ী থানা ওসি আলমগীর হোসাইন জানান, মারামারীর বিষয়টি আমি শুনেছি তবে এ ব্যাপারে এখনো কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি।

বাংলাপ্রেস

Comments are closed.