শ্রীনগরে আন্তঃ স্কুল ফুটবল টুর্নামেন্টে পরাজিত দলের হামলায় ৩৫ ছাত্র আহত

৫ শিক্ষক লাঞ্চিত
আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে আন্তঃ স্কুল ফুটবল টুর্নামেন্টে পরাজিত দলের হামলায় বিজয়ী দলের অন্তত ৩৫ জন ছাত্র আহত হয়েছে। এসময় হামলাকারীরা বিজয়ী স্কুলের ৫ জন শিক্ষককে লাঞ্চিত করে। বুধবার দুপুর একটার দিকে শ্রীনগর ষ্টেডিয়াম ও এর আশপাশে কয়েক দফা হামলার ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, শ্রীনগর উপজেলা আন্ত: স্কুল ফুটবল টুর্ণামেন্টে বুধবার শ্রীনগর পাইলট স্কুল এন্ড কলেজ ও ভাগ্যকূল হরেন্দ্র লাল উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ অংশ নেয়। উপজেলা সদরে অবস্থিত পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় খেলায় ট্রাইব্রেকারে ৩-৪ গোলে পরাজিত হয়। খেলা শেষ হওয়ার সাথে সাথে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় স্কুল এন্ড কলেজের প্রিন্সিপাল ও টুর্ণামেন্টর আহবায়ক আবুল হোসেনের উপস্থিতিতে ছাত্ররা ভাগ্যকূল হরেন্দ্র লাল উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রদের উপড় হামলা করে। এসময় তারা ভাগ্যকূল উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রিড়া শিক্ষক আবু সাঈদ তালুকদারকে অবরুদ্ধ করে রাখে। ভাগ্যকূল হরেন্দ্র লাল উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মুজিবুর রহমান জানান, ষ্টেডিয়ামে হামলার এক পর্যায়ে ভাগ্যকূল উচ্চ বিদ্যালয়ের শতাধিক ছাত্র প্রাণ ভয়ে ষ্টেডিয়াম থেকে দৌড়ে পালাতে থাকে। পাইলট স্কুলের ছাত্ররা তাদের পিছু নিয়ে চকবাজার, এম রহমান শপিং কমপ্লেক্স ও কলেজ গেটে ব্যারিকেট দিয়ে স্কুল ড্রেস দেখে সনাক্ত করে ভাগ্যকূল উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ফয়সাল শেখ, রাজু, পরাগ মন্ডল, রিয়াজ মোল্লা, ইমন, শাকিল,ইসহাক মিয়া, হৃদয়, জাকির, অহিদুল, জুয়েল, সাগর, অংবাইপ্রু মার্মা, আলামিন, বিপুল বর্মন সহ অন্তত ৩৫ ছাত্রকে আটক করে মারধর করে। এসময় ছাত্রদেরকে বাচাতে এগিয়ে আসলে ভাগ্যকূল হরেন্দ্র লাল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক আ ঃ মান্নান, খোরশেদ আলম, আমিনুল ইসলাম ও হেলালউদ্দিনকে লাঞ্চিত করা হয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। আহত ছাত্রদেরকে ভাগ্যকূল উপ স্বাস্থ্য কেন্দ্র ও সামী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এব্যাপারে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ আবুল হোসেন জানান, বহিরাগতরা হামলা করেছে এর সাথে তার স্কুলের কেউ জড়িত নয়।

উপজেরা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আজিজুল হক জানান, ঘটনাটি দুঃখ জনক।

শ্রীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ সাহিদুর রহমান জানান, সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে মামলা নেওয়া হবে।

Comments are closed.