সিরাজদিখানে প্রধান শিক্ষকের হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ বন্ধ

সিরাজদিখানে বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন এক প্রধান শিক্ষক। বৃহস্পতিবার রশুনিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে কনের মাতাকে ডেকে এই বিয়ে বন্ধ করার নির্দেশ দেন ।

বিদ্যালয়টির ৮ম শ্রেণীর ছাত্রী রাত্রি মন্ডলের (১৪) বিয়ের দিন ধার্য ছিল আগামী ৭ আগস্ট। কনের মা জোৎ¯œা মন্ডল দাওয়াত কার্ড ছাপাসহ ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহন করে। প্রশাসন খবর পেয়ে ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশীদ তালুকদারকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে প্রধান শিক্ষক কনের মাকে স্কুলে ডেকে আলোচনা করেন। পরে অঙ্গিকার নামায় স্বাক্ষর করেন প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়েকে বিয়ে দিবেন না। এসময় উপস্থিত ছিলেন উক্ত স্কুলের পরিচালনা পরির্ষদের সভাপতি এ্যাডভোকেট আবুল কাশেম, সিরাজদীখান উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ইমতিয়াজ উদ্দিন বাবুল, সিরাজদীখান থানার এস আই আরিফ হোসেন প্রমুখ

সিরাজদীখান থানার এসআই আরিফ হোসেন বলেন, কনের বাবা বিয়ের বিষয়টি চেপে যাচ্ছিলেন। ছাত্রীর মা ও বাবাকে বোঝানো হয় বাল্য বিয়ে আইন সম্মত নয়। জেল জরিমানা হতে পারে। পরে তারা বিয়ে বন্ধে সম্মত হয়েছেন।

জনকন্ঠ

Comments are closed.