টঙ্গীবাড়ীতে স্ত্রীকে পাচারের অভিযোগে স্বামীর মামলা

টঙ্গীবাড়ীতে উপজেলার হাট বালিগাঁও গ্রামের নুরুল হক মুন্সীর স্ত্রী ময়না বেগমকে সৌদি আরব পাচারের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। নুরুল হক মুন্সী বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামি করে সোমবার মুন্সীগঞ্জ আদালতে মামলা দায়ের করেন। আমলী আদালত ৪ বিচারক হায়দার আলী মামলাটি টঙ্গীবাড়ী থানাকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

নুরুল হক জানান, আড়িয়ল বিলের পার গ্রামের সিকিম আলীর ছেলে মাইনদ্দিন আমাকে ও আমার স্ত্রী ময়না বেগমকে বলে আমার মামা আড়িয়ল বিলের পার গ্রামের আসলাম সেখ সৌদি আরব হতে ২টি মহিলা মাদ্রাসার ভিসা নিয়া আসছে। তোমার স্ত্রীকে ইচ্ছা হলে পাঠাতে পারো ২০ হাজার টাকা বেতন পাবে। তারপর আমি আমার স্ত্রীকে সৌদি পাঠানোর জন্য মাইনদ্দিনকে ৮০ হাজার টাকা দেই। পরে ১৭ মার্চ মাইনদ্দিন ও তার মামা আসলাম সেখ আমার বাড়ি হতে আমার স্ত্রী ময়না বেগমকে নিয়ে যায় তারপর হতে তার আর কোনো খোঁজ পাচ্ছি না।

পরে আমি স্ত্রীর খোঁজ নেয়ার জন্য মাইনউদ্দিনের বাড়িতে গেলে সে ও তার ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী ইসলাম সেখ, সেকান্দর সেখ, আরিফ, জরিপ আমায় মেরে বাড়ি হতে তাড়িয়ে দেয়।

যুগান্তর

Comments are closed.