শ্রীনগরে নির্বাচিত চেয়ারম্যানের পক্ষে নির্বাচন না করায় যুবলীগ নেতাকে সমাজচ্যুত!

আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে এক যুবলীগ নেতাকে পরিবার সহ সমাজচ্যুত করা হয়েছে। এর পেছনে ওই ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সোলেমান খানের ইন্ধন রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার হাসাড়া ইউনিয়নের কুমারপাড়ায় এঘটনা ঘটে। হাসাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন ও তার পরিবারকে সমাজচ্যুত করার ঘোষনা দিয়ে ওই এলাকার আ: রশিদ কিন্ডার গার্টেনে সমাজপতিরা খিচুরী বিতরণ করে আনন্দ উল্লাস করেছে। ওই সমাজের প্রধান মাতব্বর হাছাই শেখ ওরফে হাসান ও জহির সমাজচ্যুত করার বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন জানান, সম্প্রতি হাসাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে তিনি দলীয় প্রার্থীর পক্ষ নিয়ে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সোলেমান খানের বিপক্ষে নির্বাচন করেন। এর পর থেকেই নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আনোয়ারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র শুরু করে। কয়েকদিন আগে আনোয়ারের সাথে তার চাচী ইভার পারিবারিক কলহ বাধে। এর সূত্রধরে স্থানীয় মতব্বররা আনোয়ারের বিরুদ্ধে সালিশ ডাকে। কিন্তু চেয়ারম্যানের ইন্ধনে মাতব্বররা বিষয়টি সুরাহা না করে টালবাহানা শুরু করে। পরে আনোয়ার নিজেই বাদী হয়ে গত ১৫ মে হাসাড়া ইউনিয় পরিষদে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান দায়িত্বভার গ্রহনের আগে ইউনিয়ন পরিষদে লিখিত অভিযোগ দায়ের করায় নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আনোয়ারের উপড় ক্ষিপ্তি হয়ে মাতব্বরদের আরো ইন্ধন দিতে থাকে।

স্থানীয়রা জানায়, চেয়ারম্যান নিজেই হাসাড়া স্কুল গেটে শান্তি ভেন্ডারের দোকানে বসে হাছাই শেখকে ওই সমাজের বিচার সালিশ করার দায়িত্ব দেয়। গত কয়েকদিন ধরে সমাজপতিরা আনোয়ারকে নানা বিষয় নিয়ে পরিবারকে নানা ভাবে চাপ দিতে থাকে। নিরুপায় হয়ে আনোয়ার বাদী হয়ে গত ৩১ মে মঙ্গলবার সকালে সমাজপতিদের বিরুদ্ধে শ্রীনগর থানায় জিডি করে। এতে সমাজপতিরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং মঙ্গলবার সন্ধ্যায় আনোয়ারের পরিবারকে সমাজচ্যুত করে।

এসময় সমাজপতিরা আনোয়ারের বাবা মতিউর রহমানকে মসজিদ কমিটি থেকে অব্যহতি ও সমাজের সকল আচার অনুষ্ঠান থেকে আনোয়ারের পরিবারের সদস্যদেরকে বয়কট করার ঘোষণা দেয়। এব্যাপারে আনোয়ার হোসেন জানান, তিনি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ থাকলে দেশের প্রচলিত আইনে তার বিচার হতে পারে। কিন্তু এভাবে সমাজচ্যুত করে তাকে সামাজিক ভাবে হেয় করা হয়েছে। এর পেছনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচন করাই কাল হয়েছে।

ইউনিয়ন পরিষদে লিখিত অভিযোগ থাকার পরও একঘরে করার বিষয়ে হাসাড়া ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান সোলেমান খানের কাছে জানতে চাইনে তিনি বলেন, পারিবারিক বিরোধের জের ধরে আনোয়ারের পারবারকে একঘরে করা হয়েছে বলে তিনি শুনেছেন। তবে এতে তার কোন ইন্ধন নেই।

Comments are closed.