গজারিয়ায় বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাইসহ ৫ জনকে কুপিয়ে জখম

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাইসহ পাঁচজনকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থকরা। শুক্রবার বিকেলে বিকেল তিনটার দিকে উপজেলার ইমামপুর ইউনিয়নে দৌলতপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার জন্য আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জিতু খানকে দায়ী করেছেন বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ খান (জিন্নাহ)। গুরুতর জখম অবস্থায় চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভাই শিপলু আহমেদ খানকে ঢাকায় ও বাকীদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

ঘটনায় আটকের পর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাইদ হোসেন নৌকার দুই সমর্থক চুন্নু মিয়া (৪৫) ও নজরুল ইসলাম খান (৩৯) কে ৬ মাসের বিনাশ্রম করাদণ্ড দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, বিকেলে মাইক্রোযোগে ভোটার স্লিপ বিতরণ করতে গেলে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর সমর্থকরা মাইক্রোর গতি রোধ করে। এ সময় ধারালো চাপাতি দিয়ে মাইক্রোতে থাকা বিদ্রোহী প্রার্থীর ভাইসহ পাঁচজনকে কুপিয়ে জখম করে তারা। নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী জিতু খান উপজেলা চেয়ারম্যান রেফায়েত উল্লাহ খান তোতার ভাই।

জিতু ও তোতা গ্রুপের নেতৃত্বে এ ইউনিয়নে ভোট কেন্দ্র দখলের আশঙ্কা করছেন এখানকার ভোটাররা। বর্তমান চেয়ারম্যান ও বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ খান (জিন্নাহ) সর্ম্পকে আপন চাচাতো ভাই। এই দুই পরিবারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে।

গজারিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হেদায়েতুল ইসলাম ভূঞা জানান, এ ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ দায়ের করেনি।

পূর্ব পশ্চিম

Comments are closed.