শ্রীনগরে প্রতারণা করে ব্যাংকে জাল টাকা দিতে এসে ধরা খেলেন প্রধান শিক্ষক

শ্রীনগরে ব্যাংক থকে টাকা তুলে প্রতারণা করে জাল টাকা ফেরত দেওয়ার সময় ধরা খেয়েছেন এক প্রধান শিক্ষক। গত বুধবার দুপুর একটার দিকে অগ্রনী ব্যাংক শ্রীনগর শাখায় এঘটনা ঘটে। ওই সময় সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক বি,চৌধুরীর বাবার প্রতিষ্ঠিত মজিদপুর দয়হাটা কেসি ইনষ্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক নিতাই চন্দ্র দাস ব্যাংক থেকে দুটি বান্ডিলে একলাখ তেপান্ন হাজার টাকা তুলেন।

এক লাখ টাকার বান্ডিলটি তার ব্যাগে রেখে অন্য বান্ডিল থেকে একটি এক হাজার টাকার নোট সরিয়ে নেন এবং পকেট থেকে একটি এক হাজার টাকার জাল নোট ওই বান্ডিলে দিয়ে ব্যাংক থেকে জাল টাকা দেওয়া হয়েছে বলে চ্যালেঞ্জ করেন। ব্যাংক কর্মকর্তা নিরুপায় হয়ে তাকে টাকা পরিবর্তন করে দেন। পরে ব্যাংকের ম্যানেজার মুজিব রহমান সিসি টিভির ফুটেজ দেখে নিশ্চিত হন প্রধান শিক্ষক প্রতারণা করেছেন। ম্যানেজার সিসি টিভির ফুটেজের ঘটনাটি শিক্ষককে ফোনে জানালে তিনি ব্যাংকে ছুটে আসেন এবং ঘটনা স্বীকার করে জাল টাকার নোটটি ফিরিয়ে নেন। পরে ব্যাংকের পক্ষ থেকে বিষয়টি মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারকে জানানো হয়।

এ ব্যাপারে ব্যাংকের ম্যানেজার মুজিব রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন। অপরদিকে শিক্ষক নিতাই চন্দ্র দাস তার ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করেন।

Comments are closed.