সংবাদ সম্মেলন: বিদ্রোহী মহিলা চেয়ারম্যান প্রার্থী কল্পনা

মোজাম্মেল হোসেন সজল: মুন্সীগঞ্জ সদরের সন্ত্রস্ত জনপদ মোল্লাকান্দি ইউনিয়নে নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন এবং বহিরাগতদের ভোট ছিনতাইয়ের প্রস্তুতির প্রতিবাদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী মহাসিনা হক কল্পনা সংবাদ সম্মেলন করেছেন। শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চরাঞ্চলের মোল্লাকান্দি ইউনিয়নের মাকহাটি বাজারে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। মহাসিনা হক কল্পনা মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা।

আনারস প্রতীকের মহিলা চেয়ারম্যান প্রার্থী মহাসিনা হক কল্পনা বলেন, তৃণমূলের ভোটারদের মতামত উপেক্ষা করে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ মহিউদ্দিন তার একক সিদ্ধান্তে রাজাকারের ছেলে রিপন পাটোয়ারি নামে নতুন এক লোককে নৌকা প্রতীক দেয়। আমাদের মূল্যায়ন না করায় ইউনিয়নের তৃণমূলের নেতা ও মোল্লাকান্দির জনগণের দাবির মুখে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। ২০০১ সালে অস্ত্র ও বোমা বিস্ফোরণসহ আমার বিরুদ্ধে ১১টি মামলা দেয় স্থানীয় বিএনপি। ইউনিয়নের ১৬ জন কাউন্সিলরের মধ্যে ১৪ জনই ছিলেন আমার পক্ষে।

তিনি আরও বলেন, মুন্সীগঞ্জ শহর থেকে হুন্ডা গুন্ডা বাহিনী মোল্লাকান্দিতে অনুপ্রবেশ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে। সদরের রামপাল ও পঞ্চসারের মতো শান্তিপূর্ণ নির্বাচন দাবি করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাহ আলম মল্লিক বলেন, অগণতান্ত্রিক পন্থার বিরুদ্ধে জনগণ প্রতিবাদ জানাতে চায়, যা সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে সম্বব। রাজনৈতিক বাণিজ্য বন্ধ করতে হবে। তৃণমূলকে মূল্যায়ন করতে হবে।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ফরহাদ খা বলেন, আমরা ৪০-৪৫ বছর ধরে আওয়ামী লীগ করছি। কিন্তু আমাদের মূল্যায়ন নেই, কাউন্সিল না দিয়েই একক সিদ্ধান্তে একজনকে মনোনয়ন দেয়া হয়। এ অগণতান্ত্রিক সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আমরা কল্পনাকে স্বতন্ত্র প্রার্থী করেছি।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা হেলালউদ্দিন সৈয়াল বলেন, আমি তিনবার এ ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের সাধারণ সদস্য (মেম্বার)। কল্পনাকে সমর্থন করায় মেম্বার পদে প্রার্থী হওয়ার পরও রিপন পাটোয়ারির গুন্ডাদের হুমকিতে বাড়ি যেতে পারছি না। তারা অস্ত্র সংগ্রহ ও বোমাবাজি করছে।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজহারউদ্দিন মোল্লা বলেন, তারা ৪০০, ১২০০ বহিরাগত গুন্ডা পাঠানোর কথা বলছে। প্রশাসন ব্যবস্থা না নিলে আমরা মোল্লাকান্দির জনগণকে নিয়েই তা প্রতিরোধ করবো।

সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপন দেওয়ান বলেন, আমাদের বহিস্কারের আগে যারা পঞ্চসারে বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন তাদের বহিস্কার করতে হবে।

নিউজ৬৯

Comments are closed.