মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন

মো.সুজন: মুন্সীগঞ্জ মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেওয়ায় মেহেদী হাসান মাহিনের উপর হামলাকারী সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবীতে পৃথক পৃথক স্থানে মানববন্ধন করেছে ৫ শতাধিক নারী-পুরুষ। রবিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় শহরের প্রেসক্লাব ও ১২ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনের সড়কে পঞ্চসার ইউনিয়নের শতশত নারী-পুরুষ এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

মাহিনের উপর হামলাকরীদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের মাধ্যমে ফাঁসির দাবী জানিয়ে মানববন্ধনকারীরা বলেন, মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়ায় গত ৬ মার্চ রবিবার রাত ১০ টার দিকে পঞ্চসার এলাকায় চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী,জুয়েল,পলাশ,স্বপন,পায়েল,শাহিন,শুভ,রবিন,হৃদয়,রাকিব,রুবেল,ও হিমেল নামের সংঘবদ্ধ একটি সন্ত্রাসীদল দেশি-বিদেশী অস্ত্র নিয়ে মাহিনকে পঞ্চসার সড়কে আটকে ব্যাপক মারধর করে ও ঘাড়ে গুলি করে পালিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে গুরুতর আহত অবস্থায় মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে মাহিনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয় । সেখানেও মাহিনের অবস্থা খারাপ হতে থাকলে বেসরকারী হাসপাতাল এপোলোর আইসিওতে রাখা হয়েছে। মাহিন এখন মৃত্যুশয্যায় এপোলো হাসপাতালের আইসিওতে ভর্তি রয়েছে।

মাহিনের ভগ্নিপতি সাইদুর রহমান বলেন,৩ আসামীকে গ্রেফতার করার পর র্দীঘ এক মাস হয়ে গেলে এখনো অপর আসামীদের গ্রেফতারে পুলিশের কোন কার্যাক্রম দেখা যাচ্ছেনা। আমরা হতাশ হয়ে যাচ্ছি এমন একটি ঘটনার পরেও পুলিশ কি কারনে আসামীদের গ্রেফতার করছে না। আমরা এসব মাদক ব্যবসায়ী সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের দাবী যানাচ্ছি। অতিদ্রুত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করা না হলে আমরা আরো বড় ধরনের কর্মসূচির ডাক দিবো।

ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে রাকিব,রুবেল ও হিমেল নামের ৩ সন্ত্রাসীকে গ্রেফতার করা হয়েছে দাবীকরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর থানার এসআই সাদিকুর রহমান বলেন, ঘটনার সাথে জড়িত অপর আসামীদের গ্রেফতারে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। তবে আসামীরা খুব চালাক ও চতুর হওয়ায় বারবার স্থান পরির্বতন করে যাচ্ছে তাই তাদের গ্রেফতারে কিছু সময় লেগে যাচ্ছে। আশা করি খুব দ্রুত তাদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।

স্বাধীনবাংলা

Comments are closed.