শ্রীনগরে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলায় দুই সাংবাদিক গুরুতর আহত

srinagar Arif5cস্বতন্ত্র প্রার্থীর বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর
আরিফ হোসেন: শ্রীনগরে ইউপি নির্বাচনের যাচাই বাছাইর দিনে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলায় দুই সাংবাদিক গুরুতর আহত হয়েছে। এ সময় তাদের মোটর সাইকেল ও ক্যামেরা ভাঙচুর করা হয়েছে। মারাত্মক আহত ওই দুই সাংবাদিকের একজনকে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি ও অন্য একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এর আগে যুুবলীগ ও ছাত্র লীগের ওই সন্ত্রাসী হামলা চলে এক সতন্ত্র ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থীর বাড়িতে। ওই হামলার সময় ছবি তুলতে গিয়ে স্থানীয় দুই সাংবাদিক তাদের আক্রমনের শিকার হন।
srinagar Arif5a
প্রত্যক্ষদর্শী, উপস্থিত সাংবাদিক ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল শনিবার শ্রীনগর উপজেলা ইউপি নির্বাচনের মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাইয়ের শেষ দিনে বিকেল ৪ টার দিকে শ্রীনগর সদর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. মোখলেছুর রহমান ও সতন্ত্র প্রার্থী তাজুল ইসলাম উপজেলা নির্বাচন অফিসে উপস্থিত হয়। এসময় আওয়ামী লীগ প্রার্থী মোখলেছুর রহমানের লোকজন দাবী করে নির্বাচন অফিসের খুব কাছে তাদের আক্রমনের জন্য তাজুল ইসলামের বাড়িতে লাঠি সোটা ও হকস্টিকসহ নানা ধরণের দেশীয় অস্ত্র মজুদ করা হয়েছে।
srinagar Arif5b
এমন অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ শ্রীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেনের উপস্থিতিতে তাজুলের বাড়িতে তল্লাশি চালায়। এ সময় ওই রকম কিছুই উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এরই ফাকে উপজেলা যুব লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জুয়েল লস্কর ও দেউলভোগ এলাকার পারভেজের ছেলে ইউনিয়ন ছাত্রলীগ নেতা প্রিন্সের নের্তৃত্বে ৫০-৬০ জনের একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ তাজুলের বাড়িতে আক্রমন চালায় ও বাড়ি ঘর ভাঙচুর করে।
srinagar Arif5c
এসময় এই হামলার ছবি তুলছিলেন দৈনিক ভোরের কাগজ পত্রিকার শ্রীনগর প্রতিনিধি অধির রাজবংশী ও দৈনিক রূপবানী পত্রিকার শ্রীনগর প্রতিনিধি মীর রাতুল। তাদেরকে ছবি তুলতে দেখে জুয়েল ও প্রিন্সের নেতৃত্বে ২০-২৫ জন সন্ত্রাসী তাদের উপর হামলা চালায় ও ব্যাপক মারধর করে । এসময় সন্ত্রাসীরা তাদের মটোর সাইকেল এবং ক্যামেরা ভাঙচুর করে। মারাত্মক আহত দুই সাংবাদিককে শ্রীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসলে রাতুলের অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি শ্রীনগর সার্কেল) মো. সামসুজ্জামান বাবু জানিয়েছেন, বিষয়টি আমি আবগত হয়েছি। এ ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে শ্রীনগর ওসিকে। তারা যে দলেরই হোকনা কেন, তাদেরকে গ্রেপ্তার করে বিচারের মুখোমুখি দাড় করানো হবে। এঘটনায় মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাব, বিক্রমপুর প্রেসক্লাব, টংগীবাড়ী প্রেসক্লাব, সিরাজদিখান প্রেসক্লাব ও শ্রীনগর প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ নিন্দা জানিয়ে দ্রুত সন্ত্রাসীদের গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়েছে।

Comments are closed.