বালুচর বাজারে স্বর্ণের দোকানে দূধর্ষ ডাকাতি

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে মঙ্গলবার রাত ২টায় বাবুল স্বর্ণ শিল্পালয়ে দুধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। উপজেলার বালুচর বাজারের খগেন রাজবংশির ছেলে বাবুল রাজবংশির স্বর্ণের দোকানে ডাকাতরা সিন্দুক ভেঙ্গে ২ লক্ষাধিক টাকার স্বর্ণলঙ্কারসহ নগদ টাকা লুটে নেয়। এ সময় ডাকাতরা বাজারের পাহাড়াদারদের বেঁধে রেখে আরো কযেকটি দোকানে তালাভেঙ্গে ডাকাতির চেষ্টা করে। এলাকাবাসী টের পেয়ে মাইকে খবর প্রচার করলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাত ৩ টায় সিরাজদিখান থানার পুলিশের একটিদল ঘটনাস্থলে যায়। তবে কোন ডাকাতকে আটক করতে পারেনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ২০/২৫ জনের একটি ডাকাত দল বাজারের ২ পাহাড়াদারসহ ১৫/১৬ জনকে বেধেঁ রেখে ডাকাতি করে। এলাকাবাসি টের পেয়ে মাইকিং করলে ডাকাতরা নদীপথে ট্রলারযোগে পালিয়ে যায়। এ সময় তাদের সাথে পিস্তল, রামদা ও চাপাতি ছিল।

দোকানের মালিক বাবুল রাজবংশি জানান, ২ ভরি স্বর্ণ, প্রায় ৭০ রুপা, নগদ ১০ হাজার টাকা ও মূল্যবান কিছু জিনিসপত্র সিন্দুক ভেঙ্গে ডাকাতরা নিয়ে গেছে।

সিরাজদিখান থানার এস আই মো. ওয়াহেদুজ্জামান (অহিদ) জানান, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে জানতে পারি একটি স্বশস্ত্র ডাকাতদল রাত ১টার পরপর ডাকাতি শুরু করে, তখন হালকা বৃষ্টি হচ্ছিল। দোকানের ভিতর ৫ জন ঘুমিয়ে ছিল। সাটার ভাঙার সময়ও যদি তারা ফোন দিত তাহলে হয়তো ডাকাতদের আটক করা যেত।

স্বাধীনবাংলা২৪

Comments are closed.