পুলিশের হাতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত!

দেশের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশের বিরুদ্ধে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগের মধ্যেই এবার মুন্সীগঞ্জে এক সাংবাদিককে মারধর করেছেন পুলিশের এক এসআই (উপপরিদর্শক)। আজ মঙ্গলবার দুপুর দুইটার দিকে মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে চায়ের দোকানে সাংবাদিক নাদিম মাহমুদকে মারধর করেন ওই এসআই। প্রেসক্লাবের প্রধান ফটকের সামনে এভাবে সাংবাদিক লাঞ্ছিতের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন সাংবাদিকরা। তারা ওই পুলিশ কর্মকর্তার বিচার দাবি করেছেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জামিল নামে সদর থানার এক এসআই (উপপরিদর্শক) চায়ের দোকানে আসেন। ‘বাবা তুমাকে কী চা দিব’ দোকানদার এ কথা বলতেই তিনি রেগে গিয়ে চা দোকানদারকে মারধর শুরু করেন। এক পর্যায়ে সেখানে উপস্থিত ঢাকাটাইমস টোয়েন্টিফোর ডটকম ও আমাদের অর্থনীতির জেলা প্রতিনিধি নাদিম মাহমুদ তাকে বলেন, ‘আপনি পুলিশ হয়েও দোকানদারকে মারলেন।’ সাংবাদিক নাদিম মাহমুদ এ কথা বলতেই তাকে চর, লাথি ও ঘুষি মেরে আহত করেন এসআই জামিল।

এ সময় ওই এসআই উচ্চকণ্ঠে বলতে থাকেন, ‘আমি এসআই জামিল, আমাকে আমার বাবাও ভয় পায়।’

উত্তেজিত ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘এই সকল লোক সব কুত্তার বাচ্চা। এখান থেকে দোকান সব সরিয়ে দিব।’

থানার ওই এসআইয়ের এমন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে দুঃখ প্রকাশ করেন মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইউনুচ আলী।

তিনি বলেন, এর জন্য আমরা দুঃখিত। এ ব্যাপারে আমরা তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এদিকে মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সদস্য সচিব ভবতোষ চৌধুরী এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।

তিনি বলেন, ঘটনাটা আমাদের সামনে হয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও বিচার দাবি করছি।

ঢাকাটাইমস

Comments are closed.