শাহ মোয়াজ্জেমের পকেট কমিটি হালে পানি পায়নি

মোহাম্মদ সেলিম: শ্রীনগরে বিএনপির শাহ মোয়াজ্জেমের পকেট কমিটি হালে কোনো পানি পায়নি। বরং এই কমিটি শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। শাহ মোয়াজ্জেমের কমিটির বিরুদ্ধে পাল্টা শক্তি পরিক্ষায় নেমেছেন মমিন আলী। আর একে কেন্দ্র করে শ্রীনগরে বিএনপির রাজনীতিতে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

বি চৌধুরী বিএনপি রাজনীতি থেকে সড়ে দাঁড়ালে, এরশাদের জাতীয় পার্টি ছেড়ে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন বিএনপিতে ফিরে। কিন্তু শ্রীনগরের রাজনীতিতে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন নিজেকে খাপ খাওয়াতে পারেনি বলে অভিযোগ উঠেছে। বরং তিনি যখন শ্রীনগরে এসেছেন তখন তার আশ পাশে বিএনপি মুলধারার রাজনীতির সাথে জড়িত নেতা কর্মীদের দেখা যায়নি। তাকে ঘিরে রাখে জাপা থেকে আসা নেতা কর্মীরা। এর ফলে তিনি স্থানীয় বিএনপির রাজনীতি অনেকটা দূরে সড়ে চলে যান বলে অনেকেই মনে করছেন।

শ্রীনগরে তার অবস্থান শক্ত করতে তিনি তার ঘরনার নেতাদের দিয়ে উপজেলা কমিটি ঘোষণা দেন। এর ফলে মুলধারা বিএনপির নেতারা বাদ পরে যান। আর এতেই বিপত্তি ঘটে। আর এই কমিটির বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন শ্রীনগর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মমিন আলী। ছুটে যান বিএনপির চেয়ারপারর্সন বেগম খালেদা জিয়ার কাছে। শ্রীনগরের ১৪টি ইউনিয়নের বিএনপির বিপুল নেতা কর্মী মমিন আলীর পক্ষে। খালেদা জিয়া মমিন আলীকে অনেক সময় দেন। আর মনোযোগ সহকারে তাদের কথা শোনেন বলে খবর পাওয়া গেছে। এ কারণে শাহ মোয়াজ্জেমের কমিটি আটকে গেছে বলে বাজারে গুঞ্জন উঠেছে।

বিক্রমপুর সংবাদ

Comments are closed.