প্রাচীন বিক্রমপুরে গায়েবী মসজিদের অজানা ইতিহাস

আহসানুল ইসলাম আমিন: বর্তমানে এটি সুয়াপাড়া মিয়াবাড়ি জামে মসজিদ নামে পরিচিত। বজ্রযোগিনী বাজার থেকে এক কিলোমিটার পশ্চিমে সুয়াপাড়া প্রাচীন মসজিদ। একটি প্রাচীন দীঘির পশ্চিম পাড়ে সুয়াপাড়া মিয়া বাড়ি মসজিদ।

এ মসজিদটি কবে, কখন, কীভাবে কে নির্মাণ করেন তার ইতিহাস কোথাও লিখা নেই। কেউ বলেন এটি গায়েবী মসজিদ। আবার কেউ মত দেন এটি সম্রাট শাহজাহান নির্মাণ করেন।

আবার কয়েক জন বললেন মসজিটটি নির্মাণ করেন সম্রাট জাহাঙ্গীর। এ গ্রামের যাদের বয়স ৭০-৮০ এর মধ্যে তারা বলেন মসজিটি সম্রাট আকবর নির্মাণ করেন। সম্রাট আকবরের কোন নিদর্শন মুন্সীগঞ্জ জেলা বা প্রাচীন বিক্রমপুরে নেই। সম্রাট শাহজাহান এর সময়ও কোন নেই। সম্রাট জাহাঙ্গীরের সেনাপতি ইসলাম খান চিশতী ঢাকা বিজয়ের আগে বিক্রমপুর জয় করেন। এ বিক্রমপুরে চাঁদরায় কেদার রায়ের সাথে ইসলাম খানের অন্তত পাঁচটি যুদ্ধ হয়। যুদ্ধে ইসলাম খান জয়ী হন। ইসলাম খান মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানের পাথরঘাটায় ‘বিক্রমপুর’ জয় করে মসজিদ নির্মাণ করেন। যা পাথরঘাটা মসজিদ নামে পরিচিত।

সুয়াপাড়ার এ প্রাচীন মসজিদটি পাঠান এবং মুঘল প্যাটার্নে নির্মিত। এ মসজিদটি খুব সম্ভবত কররানী শাসকদের সময় ব্রজযোগিনী গ্রামের সুয়াপাড়ায় নির্মিত হয়। ‘মসজিদটি ১৫৬৮-১৫৭৫ সালে নির্মাণ হয় – এমন মত বিক্রমপুর ইতিহাস পরিষদের।’

ক্রাইম ভিশন

Comments are closed.