‘সাকা-মুজাহিদের ফাঁসি সময়ের ব্যাপার মাত্র’

মুক্তিযুদ্ধের সময় বুদ্ধিজীবী হত্যার দায়ে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মোহাম্মদ মুজাহিদ ও চট্টগ্রামে নারকীয় হত্যাকাণ্ড চালানো বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর আপিল মামলার রায়ে মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। বুধবার রায় পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, এ দণ্ড কার্যকর এখন সময়ের ব্যাপার।

মাহবুবে আলম বলেন, সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরী পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাওয়া যে ডুবলিকেট সার্টিফিকেট আদালতে দাখিল করেছেন সেটা ২০১২ সালে ইস্যু করা। আদালত তা গ্রহণযোগ্য মনে করেননি। ২০১৩ সালে তিনি যখন সাক্ষ্য দেন তখন এটা উল্লেখ করেননি।

তিনি বলেন, পাকিস্তানে আমাদের যিনি হাইকমিশনার আছেন তিনি সেখানে কোনো সত্যায়িতও করেননি। কাউন্টার সাইন করতে হয়, সেটা করা হয়নি। আইনের কাছে এটা গ্রহণযোগ্য নয়।

১৯৬৭ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ছিলেন। ১৯৭১ সালে তিনি কীভাবে পাঞ্জাব বিশ্ববিদ্যালয়ে গিয়ে পরীক্ষা দিলেন সেটা বিশ্বাসযোগ্য নয়। জানান মাহবুবে আলম।

মুজাহিদের রায়ের বিষয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করছি এজন্য যে তাকে শাস্তি দেওয়া হলো বুদ্ধিজীবী হত্যা মামলায়। ১৯৭১ সালের ১৩-১৪-১৫ ডিসেম্বর যত সংখ্যক বুদ্ধিজীবী হত্যা করা হয়েছে সেটা পৃথিবীর আর কোথাও করা হয়নি। এই বিচার যদি আমরা না পেতাম তাহলে অতৃপ্তি থেকে যেতো। এ রায় আমাদের শক্তি, সান্ত্বনা।

তিনি আরও বলেন, চট্টগ্রামে সাকা চৌধুরী যা করেছেন তা অভাবনীয় । তাকে চারটি চার্জের জন্য মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে, যা আর কাউকে দেওয়া হয়নি। এটা মুক্তিযুদ্ধের আরেকটি বিজয়।

Comments are closed.