বিসিসিআইজে (BCCIJ) নির্বাচন ২০১৫ : মনোনয়নপত্র জমাদানকারীরা সবাই বৈধ

রাহমান মনি: প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিতব্য বিসিসিআইজে (বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ ইন জাপান) নির্বাচন ২০১৫ প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী সবার মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা দেন নির্বাচন কমিশন।

গত ১৭ অক্টোবর উৎসবমুখর পরিবেশে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী ব্যবসায়ীরা তাদের মনোনয়ন জমা দেন। প্রাথমিক যাচাইয়ের পর সবার মনোনয়ন গ্রহণ করেন। প্রধান নির্বাচন কমিশনার মো. জহির মনোনয়নপত্র গ্রহণ করে পরে পুঙ্খানুপুঙ্খ যাচাই-বাছাইয়ের পর জানানো হবে বলে জানান। নির্বাচন কমিশনের বাকি ৬ জন সদস্য এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

২৫ অক্টোবর ছিল মনোনয়ন প্রত্যাহারের নির্দিষ্ট দিন। সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত নির্দিষ্ট সময় কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী মনোনয়ন প্রত্যাহারের জন্য আসেননি বা কোনো ঘোষণাও দেননি।

আগামী ২৭ নভেম্বর ২০১৫ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার নির্দিষ্ট দিন। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, সেই দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে নতুন কমিটির জন্য।
এই প্রতিবেদকের এক প্রশ্নের জবাবে নির্বাচন কমিশনার জিয়াউল ইসলাম জানান, ‘আমাদের দায়িত্ব একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের আয়োজনের ব্যবস্থা নেয়া। ভোটাররা নির্ধারণ করবে কে কে হবেন তাদের প্রতিনিধি। ভোটারদের নির্ধারিত বা ভোটার কর্তৃক নির্বাচিত প্রতিনিধিদের আমরা কেবল ঘোষণা দেব এবং দায়িত্ব বুঝিয়ে দেব, এর বেশি আমাদের আর কিছু করার এখতিয়ার নেই।’ এই ব্যাপারে তিনি মিডিয়া, প্রতিদ্বন্দ্বী, ভোটার এবং সমর্থকদের সহযোগিতা কামনা করেন।

অতি নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া বিসিসিআইজে নির্বাচনে ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দেন। নির্বাচিত কমিটির সদস্য সংখ্যাও হবেন ১১ জন। তাই, যেহেতু কারোরই মনোনয়নপত্র বাতিল বলে গণ্য হয়নি এবং কেউ প্রত্যাহারও করেননি সেহেতু বেসরকারিভাবে সবাই নির্বাচিত বলে গণ্য হয়েছেন।

এই ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে নির্বাচন কমিশন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে জানানো হবে বলে মন্তব্য করেন। মো. জহির বলেন, ‘বর্তমান ইন্টারনেটের যুগে ওয়েব পেজে দৃষ্টি রাখবেন। এছাড়া ২৭ নভেম্বর সবকিছুই নির্দিষ্ট হয়ে যাবে। আর একটু অপেক্ষা করার পরামর্শ দেন নির্বাচন কমিশনার।

সাপ্তাহিক

Comments are closed.