ইলোরা গহর: সরকারকে পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ করছি

‘জন্ম আমার ধন্য হলো মাগো’, ‘নোঙ্গর তোলো তোলো সময় যে হলো হলো’, ‘পূবের ঐ আকাশে সূর্য উঠেছে’ গানগুলো এসেছে গীতিকবি নয়ীম গহর এর হাত থেকে। যে গানগুলো মহান একাত্তরে মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রেরণা জুগিয়েছিল। বরেন্য এ গীতিকার এখন গুরুতর অসুস্থ হয়ে রাজধানীর উত্তরার ওমেন্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

তার শারীরিক অবস্থা বেশ খারাপ বলে জানিয়েছে পরিবারের সদস্যরা। তাকে কৃত্রিম উপায়ে খাবার দেওয়া হচ্ছে। জানা গেছে, ছয় মাস আগে স্ট্রোক করার কারণে স্মৃতিশক্তি লোপ পেয়েছে তার। আর গত মাসে তার ‍উরুতে একটি অস্ত্রোপচারের পর সেখানে পচন ধরে। অন্যদিকে দীর্ঘদিন বিছানায় থাকায় তার পিঠেও ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। সবমিলিয়ে বর্তমান অবস্থা বেশ গুরুতর আকার ধারণ করেছে।

২০০০ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সার্বিক সহযোগিতায় নয়ীম গহরের ওপেন হার্ট সার্জারি হয়েছিল। এরপর থেকে তেমন কোনও সহায়তা তিনি পাননি। মেয়ে অভিনেত্রী ইলোরা গহর জানান, পরিবারের পক্ষ থেকে বেশ কয়েকবার প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার চেষ্টা করা হলেও তার দেখা পাননি।

নয়ীম গহর ২০১২ সালে দেশের সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় সম্মাননা ‘স্বাধীনতা পদক’ পেয়েছেন। বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে গড়ার লক্ষ্যে বিশেষ ভূমিকা ছিল এ গীতিকবির। নিজের অর্থ সম্পত্তি যা ছিল সবই মানুষের কল্যাণে ব্যয় করেছেন। কিন্তু এ মুহূর্তে এসে থমকে আছে তার চিকিৎসা।

অভিনেত্রী ইলোরা গহর বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমার বাবার চিকিৎসার্থে সরকারকে পাশে দাঁড়ানোর অনুরোধ করছি।’

বাংলা ট্রিবিউন

Comments are closed.