পুত্রকে অপহরণ করতে গিয়ে, পিতা আটক…!

মুন্সীগঞ্জে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র আবির হোসেন অপহরনের দায়ে পিতা আলমগীর হোসেনকে পাকড়াও করে। রবিবার দুপুরে মুক্তারপুর সেতুর টোল পয়েন্ট থেকে পুত্রকে উদ্ধার এবং পিতাকে আটক করে হ্যান্ডকাপ পরিয়ে প্রথমে এসপি অফিস এবং পরে টঙ্গীবাড়ি থানায় পাঠানো হয়। তবে পুত্রকে মায়ের কাছে ফেরত এবং মুছলেকায় সন্ধ্যায় পিতাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

সদর থানার এসআই মোমেন ভূইয়া জানান, আলমগীর হোসেনের সাথে তার স্ত্রী কনিকা আক্তার সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়েছে তিন বছর আগে। সন্তান আবির মায়ের সাথে টঙ্গীবাড়ি উপজেলার রংমেহের গ্রামে নানা বাড়িতে বসবাস করছিল। পরে রংমেহার প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার সময় স্কুলের সামনে থেকে মাইক্রোবাসে তুলে ঢাকার দিকে রওনা হয়। এই নিয়ে এলাকায় হৈচৈ পরে যায়। টঙ্গীবাড়ি পুলিশ জরুরি বার্তা দিয়ে বের হওয়ার সব পথে চেক পোস্ট বসায়। পরে মুক্তারপুরে আটক হয়।
টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, স্বামী আলমগীরের বাড়ি শরীয়তপুরে। সে ঢাকায় চাকুরী করেন। তার দাবী সন্তানকে বাবার সাথে দেখা করতে দেয়া হচ্ছিল না। তাই সে অপহরণের চেষ্টা চালায়। পরবর্তীতে পুলিশ জিডি করে পুত্রকে মায়ের কাছে ফেরত এবং পিতাকে পারিবারিক আদালতে যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়।

জনকন্ঠ

Comments are closed.