বাস পানিতে: শ্রীনগরে নারীসহ দুই লাশ উদ্ধার

ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কের শ্রীনগরের ওমপাড়া বটতলা এলাকায় খাদের পানিতে ডুবে যাওয়া বাস থেকে এক নারীসহ ২ যাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

বাস থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে ১৭ জনকে। এদের মধ্যে দুইজনকে শ্রীনগরের ষোলঘর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিরা চিকিৎসা নিয়ে নিজ গন্তব্যে চলে গেছেন।

শুক্রবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে দুই যাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়।

পানিতে ডুবে যাওয়া বাসটির অর্ধেকটা টেনে তোলা হয়েছে। ভেতরে লাশ আছে কিনা তা তল্লাশি করে দেখছেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। তবে, এখনও কতজন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন তার সঠিক তথ্য দিতে পারেনি পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বাংলানিউজকে জানান, দুর্ঘটনার পরপরই বাসের ভেতর থেকে ১৫ থেকে ১৭ জন যাত্রী আহত অবস্থায় সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হলেও অপর যাত্রীদের কি অবস্থা তা জানা যায়নি। দুর্ঘটনার পর থেকে শ্রীনগর থানা পুলিশ, হাইওয়ে থানা পুলিশসহ স্থানীয় এলাকাবাসী উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একাধিক টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে।

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মজিবুর রহমান বাংলানিউজকে জানান, বাসটি এখনও পুরোপুরি তীরে তোলা হয়নি। তাই বাসের মধ্যে লাশ আছে কিনা তা সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না। এ পর্যন্ত ২ যাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, দুর্ঘটনার সময় বেশির ভাগ যাত্রী জানালা দিয়ে বের হয়ে যেতে পেরেছেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর
ভিডিওঃ দ্য রিপোর্

Comments are closed.