মাদ্রাসার শিক্ষক দ্বারা ছাত্র বলৎকার!

মুন্সীগঞ্জ শহরের লাল মিয়া হাফেজিয়া বালক মাদ্রাসায় ১২ বছরের শিশু ছেলে শিক্ষক দ্বারা বলৎকার হয়েছে। গতকাল বুধবার গভীর রাত ১টার দিকে চৌধুরী কমিউনিটি সেন্টারের পাশের বোগদাদিয়া প্লাজার ৬ষ্ঠ তলায় এ ঘটনা ঘটে। জানাযায় মাদ্রাসায় নাজারা বিভাগে শিশু ছেলে মো: জুবায়ের হোসেন (১২) এবং শিক্ষক আরিফুল ইসলাম (২৪) একই কক্ষে থাকতো রাত ১টার দিকে ফুসলিয়ে বলদকার করে লম্পট শিক্ষক। পরে আজ বৃহস্পতিবার সকালে বিষয়টি শিশু জুবায়ের হোসেন তার বাবা কবির হোসেনকে জানান। এসময় বিষয়টি যানাজানি হলে মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ঐ লম্পট শিক্ষকে আজ দুপুর ১টার দিকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেন।

গ্রেফতারকৃত শিক্ষক আরিফুল ইসলাম সদর উপজেলার চরকেওয়ার ইউনিয়নের ছোট গুহেরকান্দি গ্রামের মোঃ শাহিন আলমের ছেলে। সে গত ৪দিন আগে এই মাদ্রাসায় সহকারী শিক্ষক হিসাবে নাজারা বিভগে নিয়োগ পান।

প্রধান শিক্ষক মো: হাবিবুর রহমান জানান, শিশুটির বাবা বলদকারের বিষয়টি আমাদের অবগত করলে আমারা ঐ শিক্ষকে আটক করি। যাতে শিশুটি সুষ্ঠ বিচার পায় সেই লক্ষে তাকে পুলিশে সোর্পদ করা হয়েছে। এবং শিক্ষক আরিফুল ইসলামকে বহিস্কার করা হয়েছে।

অপর দিকে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইউনুচ আলী জানান,ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে শিক্ষক আরিফুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়েছে । এব্যাপারে শিশুটির বাবা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

গজারিয়া নিউজ

Comments are closed.