পানি বন্দি: নির্ঘুম রাত কাটছে পানি বন্দি মানুষের

মো: রুবেল ইসলাম: মাওয়া কান্দিপাড়া যশলদিয়া অব্যহত বর্ষনে যোয়ারের পানিতে তলিয়ে প্রায় ৫০০ (পাঁচশত) ঘরবাড়ি। আশ্রয়ের অভবে নিঘুম রাত কাটছে পানি বন্দি মানুষের ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় কৃষকের পরিবারের চলছে হাহাকার। অসংখ্য কিছু পুকুর ভেসে যাওয়ায় মাছ চাষীদের ও মাথায় হাত পড়ছে। এলাকাবাসিরা জানায় নদীর প্রচন্ড ঢেউয়ে পানি বন্দি হয়ে মান বেতর দিন কাটছে এক সপ্তাহ তবে এই তিন চারটি গ্রামের উপর জেলা সদরের কোন উপস্থাপনা নেই বেশ কিছু স্থানে পানি কমতে শুরু করলেও জেলা উপদেষ্টারা বেড়িবাদ করে দেবে তা জানিয়েছে।

এতে করে নানা মিডিয়াতে বিশ্ব ব্যাপি জানাচ্ছে তবে কোন স্থানে উন্নতি দেখা যাচ্ছে না এমতাবস্থায় যাবে কত দিন কাটবে কত রাত এটা দুর্ভোগ এলাকাবাসির অর্তনাদ অভিরাম বর্ষণে লৌহজং উপজেলার দশটি ইউনিয়নের দেরশতাদিক গ্রামের বিভিন্ন এলাকার পাকা ধান সহ অবানচিত পানিতে ডোবে থাকায় উঠতি পাকে ধানে এখন পচন ধরতে শুরু করেছে। উপজেলা কৃষি অফিসের সূত্রে যানা গেছে চলতি ইরিবুড়– মৌসুমে দশটি ইউনিয়নে দুই হাজার আটশ বাইশ হেকটর জমিতে ইড়ি বুরু সহ আউস ধান তিল পাট সাকশবজি ইত্যাদি আবাদ করা হয়।

গত কয়েকদিনের টানা বর্ষণে লৌহজং. মাওয়া. যশলদিয়া, কান্দিপাড়া, ব্রামনগাও,সন্দিসা,খিদীরপাড়া, গাউদিয়া,বেজগাও,পয়সামাইজগাও,এই দশটি ইউনিয়নের শত শত একর জমি পানিতে ডুবে আছে।

Comments are closed.